ঢালিউড

‘স্থিতাবস্থা’র মধ্যেই সা. সম্পাদকের চেয়ারে বসলেন নিপুণ

ঢাকা, ১০ ফেব্রুয়ারি – চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক পদ নিয়ে হাইকোর্টের দেওয়া আদেশ ১৩ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত স্থগিত করে ওই পদের ওপর বর্তমানে ‘স্থিতাবস্থা’ জারি রয়েছে।

চিত্রনায়িকা নিপুণের আপিলের পরিপ্রেক্ষিতে গত ৯ ফেব্রুয়ারি সুপ্রিম কোর্টের চেম্বার বিচারপতি ওবায়দুল হাসান এ আদেশ দেন।

এর আগে চিত্রনায়ক জায়েদ খান শিল্পী সমিতির নির্বাচনে আপিল বোর্ডের প্রার্থিতা বাতিলের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে রিট করেন। সে সময় রিটের শুনানি শেষে আপিল বোর্ডের দেওয়া সিদ্ধান্ত স্থগিত করেন হাইকোর্ট। এরপর নিপুণ সুপ্রিম কোর্টে আপিল করলে সাধারণ সম্পাদক পদে স্থিতাবস্থা জারি হয়।

স্থিতাবস্থা প্রসঙ্গে উল্লেখ রয়েছে, পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত সাধারণ সম্পাদক পদে কেউ দায়িত্ব পালন করতে পারবেন না। সে পর্যন্ত কেউ কার্যালয়েও প্রবেশ করতে পারবেন না।

কিন্তু আজ (১০ ফেব্রুয়ারি) বিকালে শিল্পী সমিতির কার্যালয়ে প্রবেশের পর সাধারণ সম্পাদকের চেয়ারে নিপুণকে বসে থাকতে দেখা গেছে। এ সময় এই চিত্রনায়িকা অনেকের ফুলেল শুভেচ্ছায় সিক্ত হন। বিষয়টি অনেককে অবাক করেছে। প্রশ্ন উঠেছে- নিপুণ আইন ভঙ্গ করছেন কিনা?

আজ বিকাল ৩টায় শিল্পী সমিতির কার্যালয়ে গিয়ে দেখা যায়, বিভিন্ন সংগঠনের প্রধানরা নিপুণকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানাচ্ছেন। পরে সবাই মিলে তাকে মিষ্টিমুখ করান। শিল্পী সমিতির টেবিলে নিপুণের নেম প্লেটও দেখা গেছে; সেখানে নামের নিচে ‘সাধারণ সম্পাদক’ উল্লেখ রয়েছে। এ সময় নিপুণের প্যানেলের অনেকে উপস্থিত থাকলেও নবনির্বাচিত সভাপতি ইলিয়াস কাঞ্চনকে দেখা যায়নি।

গত ২৮ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত হয় বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির দ্বিবার্ষিকী নির্বাচন। নির্বাচনে জায়েদ খান এবং নিপুণ ভিন্ন প্যানেল থেকে সাধারণ সম্পাদক পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। ভোটের ফলাফলে জায়েদ খান জয়ী হলেও, নিপুণ জায়েদের বিরুদ্ধে নির্বাচন বিধি না-মানার অভিযোগ করেন। এরপরই নানা ঘটনার মধ্যে দিয়ে বিষয়টি আদালত পর্যন্ত গড়ায়। বর্তমানে আদালতের নির্দেশেই ওই পদের ওপর ‘স্থিতাবস্থা’ জারি রয়েছে। এমন অবস্থায় নিপুণের কার্যালয়ে প্রবেশ এবং সেখানে সাধারণ সম্পাদকের চেয়ারে বসে ওই পদজয়ী হিসেবে শুভেচ্ছা গ্রহণ কতটা আইনসিদ্ধ জানতে তাকে ফোন দেওয়া হয়। কিন্তু অপরপ্রান্ত থেকে নিপুণের সাড়া পাওয়া যায়নি।

তবে এক ভিডিও সাক্ষাৎকারে এ প্রসঙ্গে নিপুণকে কথা বলতে দেখা যায়। সেখানে তিনি ‘তার চেয়ারে বসায় কোনো বাধা নেই’ মন্তব্য করেছেন।

চেম্বার বিচারপতি নিপুণের আবেদন আপিল বিভাগের পূর্ণাঙ্গ বেঞ্চে শুনানির জন্য পাঠিয়েছেন। আগামী ১৩ ফেব্রুয়ারি এই শুনানি হওয়ার কথা রয়েছে। এরপরই মূলত জানা যাবে শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক কে?

এন এইচ, ১০ ফেব্রুয়ারি

Back to top button