সংগীত

বিশ্ব মিডিয়ায় সুরসম্রাজ্ঞীর প্রয়াণের খবর

মুম্বাই, ০৬ ফেব্রুয়ারি – উপমহাদেশের সংগীতভক্তদের সুরের মায়াজালে বেঁধে প্রখ্যাত সংগীতশিল্পী লতা মঙ্গেশকর ইহজগতের মায়া কাটিয়ে রোববার শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেছেন। তার বয়স হয়েছিল ৯২ বছর। তার মৃত্যুতে উপমহাদেশের সংগীতাঙ্গনে মেনে এসেছে শোকের ছায়া। শুধু সংগীতাঙ্গনই নয়, বিশ্বের প্রভাবশালী গণমাধ্যমও ফলাও করে প্রচার করেছে কিংবদন্তি এই সংগীতশিল্পীর প্রয়াণের খবর।

উপমহাদেশের প্রখ্যাত এই সংগীতশিল্পীর মৃত্যুতে প্রভাবশালী মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএন শিরোনাম করেছে, ৯২ বছর বয়সে গায়িকা লতা মঙ্গেশকরের প্রয়াণে শোক করছে ভারত।

সিএনএন লতা মঙ্গেশকরকে অভিহিত করে ‘ভারতের নাইটিংগেল’ হিসেবে। সিএনএনের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, তার কণ্ঠ ভারতের প্রায় প্রতিটি পরিবারের অবিচ্ছেদ্য অংশে পরিণত হয়।

কিংবদন্তি এই সংগীতশিল্পীর প্রয়াণে বিবিসির করা শিরোনামে বলা হয়েছে, লতা মঙ্গেশকর: ৯২ বছর বয়সে ভারতের কালজয়ী গায়িকার জীবনাবসান।

সংবাদ সংস্থা অ্যাসোসিয়েটেড প্রেসের (এপি) শিরোনামে বলা হয়েছে , কালজয়ী গায়িকা লতা মঙ্গেশকর ৯২ বছর বয়সে মারা গেছেন। দক্ষিণ এশিয়ার কোটি মানুষ তার কণ্ঠ নিমিষেই চিনতে পারতেন বলে এ নিয়ে প্রতিবেদনে জানিয়েছে এপি।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যশ গার্ডিয়ানের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ভারতের বেশ কয়েক প্রজন্মের কাছে সংগীত ও সুর মানেই লতা মঙ্গেশকর। ওই প্রতিবেদনে তাকে ভারতের দেশের সবচেয়ে প্রভাবশালী গায়িকা হিসেবে অভিহিত করা হয়েছে।

ভ্যারাইটি ডটকম লতাকে অভিহিত করেছে ‘সুরের রানী’ হিসেবে। এই অনলাইন সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদনে বলা হয়, লতা ভারতের গায়ক-গায়িকাদের গানের জন্য এককালীন অর্থের পরিবর্তে রয়্যালিটি পাওয়ার কৃতিত্বের দাবিদার। গত শতকের ষাটের দশক থেকে তিনি এই দাবি জানিয়ে আসছিলেন।

নিউইয়র্ক টাইমস তাদের শিরোনামে লতাকে ‘বলিউডের সবচেয়ে জনপ্রিয় কণ্ঠের অধিকারী’ বলে উল্লেখ করে। কাতার ভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরার প্রতিবেদনে লতাকে বলা হয়েছে হিন্দি গানের ‘আইকন’।

সংগীত বিষয়ক মার্কিন সাময়িকী রোলিং স্টোন তাদের শিরোনামে লিখেছে, লতা মঙ্গেশকর, ভারতের কিংবদন্তি গানের পাখি, ৯২ বছর বয়সে চলে গেলেন।

লতার মৃত্যুতে সৌদি আরবের সংবাদমাধ্যম সৌদি গেজেট লিখেছে, ভারতের নাইটিঙ্গেল ৯২ বছর বয়সে মারা গেছেন।

এন এইচ, ০৬ ফেব্রুয়ারি

Back to top button