জাতীয়

বাসায় থেকে চিকিৎসা চলছে খালেদা জিয়ার

ঢাকা, ০৪ ফেব্রুয়ারি – খালেদা জিয়ার ব্যক্তিগত চিকিৎসক এবং মেডিকেল বোর্ডের সদস্য ডা. এজেডএম জাহিদ হোসেন জানিয়েছেন, গুলশানে নিজ বাসভবনে ‘ফিরোজা’য় রেখেই বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। তিনি বলেন, খালেদা জিয়ার যে কোন স্বাস্থ্য ঝুঁকির সম্ভাবনা সব সময় রয়েছে।

শুক্রবার গণমাধ্যমকে জাহিদ হোসেন বলেন, ম্যাডামকে বাসায় রেখেই মেডিকেল বোর্ড চিকিৎসা দিচ্ছেন। প্রতিদিনই মেডিকেল বোর্ডের কোন না কোন সদস্য তার শারীরিক অবস্থা পর্যবেক্ষণ ও স্বাস্থ্য পরীক্ষা করেন। আর উনার শারীরিক অবস্থা পর্যবেক্ষণ করে সে অনুযায়ী তাকে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। সম্পূর্ণ সাবধানতা অবলম্বন করেই সব করা হয়ে হচ্ছে।

তিনি বলেন, বেগম খালেদা জিয়ার যে কোন স্বাস্থ্য ঝুঁকির সম্ভাবনা সব সময় রয়েছে। কারণ তার লিভার সিরোসিসের যে চিকিৎসা, সেটা কিন্তু এখনও আমরা করতে পারিনি। কারণ বাংলাদেশে এর চিকিৎসা সম্ভব নয়।

টানা ৮১ দিন হাসপাতালে থাকার পর গত ১ ফেব্রুয়ারি গুলশানের বাসা ‘ফিরোজা’য় ফিরেছেন খালেদা জিয়া।

গত ১৩ নভেম্বর লিভারে সিরোসিসে আক্রান্ত হয়ে বসুন্ধরার এভারকেয়ার হাসপাতালে ভর্তি হন খালেদা জিয়া। ওই সময়ে তার শারীরিক অবস্থার অবণতি হলে দ্রুতই তাকে সিসিইউ (ক্রিটিক্যাল কেয়ার ইউনিট) ভর্তি করা হয়। হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ অধ্যাপক শাহাবুদ্দিন তালুকদারের নেতৃত্বে ১০ সদস্যের বিশেষজ্ঞ চিকিতসকদের সমন্বয়ে গঠন করা হয় মেডিকেল বোর্ড।
সিসিইউতে চিকিৎসকদের নিবিড় পর্যবেক্ষণে ক্ষণে ক্ষণে রক্তক্ষরণ বন্ধ হলে গত ৯ জানুয়ারি খালেদা জিয়াকে কেবিনে স্থানান্তরিত করা হয়।

সূত্র: বাংলাদেশ জার্নাল
এম ইউ/০৪ ফেব্রুয়ারি ২০২২

Back to top button