ক্রিকেট

কায়েস-লিটনের ব্যাটে চট্টগ্রামকে গুঁড়িয়ে দিলো কুমিল্লা

ঢাকা, ০৪ ফেব্রুয়ারি – চলতি বিপিএলের ১৮তম ম্যাচে বৃষ্টি হানা দেয়। যার কারণে উভয় দলের ২টি করে ওভার কেটে নেয়া হয়েছিল। ফলে ম্যাচের দৈর্ঘ্য দাঁড়ায় ১৮ ওভারে। নির্ধারিত এই সময়ে ৮ উইকেট হারিয়ে ১৩৮ রান সংগ্রহ করেছিল চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স। কিন্তু কুমিল্লার সামনে লক্ষ্য দাঁড়ালো ১৪৪ রান। কিন্তু কোনো লক্ষ্যই বড় হলো না কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের সামনে। বোলিংয়ে মোস্তাফিজের পর রান তাড়া করতে নেমে দুই ওপেনার ইমরুল কায়েস এবং লিটন দাসের দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ে ১ উইকেট আর ৯ বল হাতে রেখেই দুর্দান্ত এক জয় তুলে নিয়েছে কুমিল্লা। এই জয়ের ফলে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে উঠে এলো কুমিল্লা।॥

এই দুই ওপেনারের ব্যাটেই বলতে গেলে উড়ে গেলো চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স। দুই ব্যাটার মিলে ১৬.১ ওভার ব্যাট করে গড়েন ১৩৮ রানের জুটি। দল যখন একেবারে জয়ের দ্বারপ্রান্তে, তখনই মৃত্যুঞ্জয়ের বলে আউট হয়ে যান লিটন দাস। ৪টি বাউন্ডারি আর ৩টি করে ছক্কার মারে ৩৭ বলে ৫৩ রান করে আউট হন লিটন।

এর আগে মিরপুরে টসে হেরে ব্যাটিংয়ে নামে চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স। টসে জিতে প্রতিপক্ষকে প্রথমে ব্যাট করার আমন্ত্রণ জানায় কুমিল্লা। নির্ধারিত ১৮ ওভারে ৮ উইকেট হারিয়ে স্কোরবোর্ডে চট্টগ্রামের সংগ্রহ ১৩৮ রান।

ইনিংসের শুরুতেই চট্টগ্রামকে আঘাত করে কুমিল্লা। শূণ্য রানেই ফিরিয়ে দেয় ওপেনার ওয়ালটনকে। অবশ্য আরেক ওপেনার উইল জ্যাকস আফিফ হোসেনকে নিয়ে বেশ ভালো সংগ্রহের দিকে যাচ্ছিলেন। দ্বিতীয় উইকেটের পতন ঘটে দলের ৬২ রানে। আফিফ (২৭) ফিরে গেলেও জ্যাকস অর্ধশতক তুলে নেন। তার ব্যাট থেকে আসে ৩৭ বলে ৫৭ রান।

দলের বাকি ব্যাটারদের মধ্যে শামিম হোসেনের ২৬ রান ছাড়া আর কেউই কুমিল্লার বোলিংয়ের সামনে দাঁড়াতে পারেননি। খারাপ আবহাওয়ার কারণে ইনিংস নির্ধারিত হয় ১৮ ওভারের। চট্টগ্রাম স্কোরবোর্ডে ৮ উইকেটে ১৩৮ রান তুলতে সক্ষম হয়।

কুমিল্লার পক্ষে মোস্তাফিজুর রহমান একাই পান পাঁচ উইকেট। তিনি চার ওভারে মাত্র ২৭ রান দিয়ে নিজের অর্জনের ঝুলিতে পাঁচ উইকেট যুক্ত করেন। নাহিদুল ইসলাম ও তানভীর ইসলাম একটি করে উইকেট দখল করেন।

ম্যাচ সেরা হয়েছেন হয়েছেন মোস্তাফিজুর রহমান।

সূত্র : বাংলাদেশ জার্নাল
এন এইচ, ০৪ ফেব্রুয়ারি

Back to top button