মিডিয়া

সাংবাদিকের আর্তনাত: আমারে মাইরেন না, আমি আর নিউজ করব না

চট্টগ্রাম, ০২ নভেম্বর- চট্টগ্রাম মহানগর থেকে নিখোঁজ হওয়ার তিন দিন পর সাংবাদিক গোলাম সরওয়ারকে অচেতন অবস্থায় সীতাকুণ্ডের কুমিরা থেকে উদ্ধার করেছে স্থানীয় ব্যক্তিরা। গতকাল রবিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে বড়কুমিরা গরুর বাজার এলাকায় খালের পারে তাঁকে পাওয়া যায়।

স্থানীয় ব্যক্তিরা গোলাম সরওয়ারকে উদ্ধার করে কুমিরা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোরশেদ হোসেন চৌধুরীকে খবর দেয়। চেয়ারম্যান বিষয়টি থানায় জানান। পুলিশ রাত ৮টার দিকে গিয়ে সরওয়ারকে নিয়ে যায়।

চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের (সিএমপি) কমিশনার সালেহ্ মোহাম্মদ তানভীর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, গোলাম সরওয়ারকে অচেতন অবস্থায় সীতাকুণ্ডের কুমিরায় পাওয়া গেছে।

স্থানীয় কয়েকজন জানান, উদ্ধারের সময় গোলাম সরওয়ার বলতে থাকেন, ‘ভাই, আমারে মাইরেন না। আমি আর নিউজ করব না।’

ইউপি চেয়ারম্যান মোরশেদ হোসেন চৌধুরী বলেন, সন্ধ্যার কোনো এক সময় গোলাম সরওয়ারকে কে বা কারা জঙ্গলে ফেলে যায়। বাজারের এক লোক প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে সেদিকে গিয়ে গোঙানির শব্দ শুনতে পান। কাছে গিয়ে ওই ব্যক্তি গোলাম সরওয়ারকে দেখতে পান। পরে তাঁকে (চেয়ারম্যান) খবর দেওয়া হয়। তিনি পুলিশকে খবর দেন।

গোলাম সরওয়ার নিখোঁজের পর থেকে তাঁকে উদ্ধারে আন্দোলন চালিয়ে আসা চট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক ম শামসুল ইসলাম বলেন, ‘সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে সরওয়ারকে উদ্ধার করা হয়। এ সময় তিনি অচেতন ছিলেন। পরে রাতেই তাঁকে চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।’

গোলাম সরওয়ার সাপ্তাহিক আজকের সূর্যোদয় পত্রিকার চট্টগ্রাম ব্যুরোর নিজস্ব প্রতিবেদক। গত বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে তিনি চট্টগ্রাম নগরের ব্যাটারি গলি এলাকার নিজ বাসা থেকে বের হওয়ার পর নিখোঁজ হন। এ ঘটনায় কোতোয়ালি থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করা হয়। তাঁর বাড়ি চন্দনাইশ উপজেলায়। তিনি চট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়নের সদস্য।

সূত্র: কালের কন্ঠ
আডি/ ০২ নভেম্বর

Back to top button