জানা-অজানা

কফির জন্য বিখ্যাত আট শহর

আবু তালহা ও জনি সাহা

সকালে ঘুম থেকে উঠেই এক পেয়ালা কফি বদলে দিতে পারে আপনার সারাদিন। এছাড়াও দিনের যেকোনো সময় এক পেয়ালা কফি আপনার অবসন্নতা কাটিয়ে চাঙ্গা করে তুলতে পারে মুহূর্তের মধ্যেই। কফির এ অসাধারণ গুণের কারণে দিন দিন চাহিদা বাড়ছে এর। আর গ্রাহকদের চাহিদাকে মূল্যায়ণ করে স্বাদেও বৈচিত্র আনছে কোম্পানিগুলো। ১৫ শতকের দিকে আরবরা সর্বপ্রথম কফি উৎপাদন করেন। ১৮৪৩ সালে এক ফ্রান্স নাগরিক সর্বপ্রথম বাণিজ্যিকভাবে কফি তৈরির মেশিন আবিষ্কার করেন।

কফি বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম বিক্রিত পণ্য (জ্বালানি তেল প্রথম) এবং বিশ্বের সর্বাপেক্ষা বেশি পানকৃত পানীয়র অন্যতম। আসুন জেনে নেই কফির জন্য বিখ্যাত পৃথিবীর আট শহরের নাম। যেখানে আপনি পাবেন আপনার পছন্দের স্বাদের কফি।


লন্ডন
এসপ্রেসোকে ভিন্ন মাত্রায় এনে অসিস এবং কিউস শহরে প্রথম কফিসপ শুরু হয়। এখানে ফ্ল্যাট হোয়াইট এবং ক্যাপাচিনোর চাহিদা সবচেয়ে বেশি। যদিও ক্যাফে সার্ভিসে লন্ডনকে এখনও অনেকটা পথ চলতে হবে। তবে গত পাঁচ বছরের চিত্র ভিন্ন। পূর্ব লন্ডনের অলপ্রেস, ক্লিম্পসন অ্যান্ড সনস এবং ক্যারাভ্যানে পাবেন আপনার প্রিয় স্বাদের কফি।


মেলবোর্ন
মেলবোর্নে কফির জনপ্রিয়তা দিন দিন বাড়ছে। একই সঙ্গে গড়ে উঠছে কফি কালচার। কফি যেন তাদের জীবনের অবিচ্ছেদ্য অংশ হয়ে দাঁড়িয়েছে। যে কারণে পুরো মেলবোর্ন শহরে আপনার ভালো লাগবে না এমন কফি খুঁজে পাওয়া দুষ্কর। উত্তর মেলবোর্নের অকশন রুমস, দক্ষিণ মেলবোর্নর ডেডম্যানে এসপ্রেসোতে হোয়াইট হোয়াইট লাটেস, ক্যাপাচিনো, ফ্ল্যাট হোয়াইটের পাশাপাশি পিকোলো লাটেসও পাবেন আপনার পছন্দের স্বাদের কফি।


রেকযাভিক, আয়্যার ল্যান্ড
স্ক্যান্ডানেভিয়ানদের মাথাপিছু কফি গ্রহণের হার পৃথিবীতে সবচেয়ে বেশি। একইভাবে আয়ারল্যান্ডের অধিবাসীরাও কফি বলতে পাগল। খুব বেশি আগের কথা নয়, রেকযাভিকে কফি ছিল খাবারের চেয়েও বেশি প্রিয়। মূলত স্প্রেসো ধরনের কফি খেতে তারা কফি হাউসে যান। ক্যাফিটার, স্টোফেন এবং ক্যাফিসমিডজাতে আপনার প্রিয় স্বাদের কফি পেয়ে যাবেন।


রোম
ইতালিয়ান সংস্কৃতির একটি অংশ কফি। হাতে গুণে কয়েকজনকে পাওয়া যাবে যারা কফি খান না। রোসাটি, সেইন্ট, ইস্তাসি আপনাকে দিতে পারে সেরা মানের এক পেয়ালা স্প্রেসো।


সিঙ্গাপুর
সিঙ্গাপুরের জীবনযাত্রায় সবসময়ই অংশ হয়ে আছে কফি। চায়নাটাউনের স্ট্রেঞ্জারস রিইউনিয়ন, পাসার বেলা বাজারে ডাচ কলোনি’র এক পেয়ালা লাটে, মোচা কিংবা ক্যাপাচিনো আপনাকে চাঙ্গা করে দিতে পারে মুহূর্তেই।


সিয়াটল
আমেরিকার ছোট অংশ সিয়াটলের ক্যাপিটল হিলে ভিকট্রোলা কফি রোস্টারস, কলাম্বিয়া সিটিতে ইম্পায়ার স্প্রেসো এবং সিটেল কফি ওয়ার্কসে আপনি খুঁজে পাবেন আপনার পছন্দের স্প্রেসো এবং ক্যাপাচিনো।


ভিয়েনা, অস্ট্রিয়া
ভিয়েনার ঐতিহ্য হিসেবে ২০১১ সালে ইউনেস্কোর তালিকাভুক্ত হয় কফি। কফি কালচার, ইসেনটি, কফি পাইরেটস এবং ডেমিল আপনাকে পরিবেশন করবে নতুন স্টাইলে স্প্রেসো এবং ক্যাপাচিনো।


ওয়েলিংটন, নিউজিল্যান্ড
ওয়েলিংটনে কেবল বাড়িতে নয়, অফিস-আদালতেও আপ্যায়ন করার জনপ্রিয় উপকরণ কফি। অফিস-আদালতগুলোতে যেন এটি আনঅফিসিয়াল নিয়ম হয়ে দাঁড়িয়েছে। পুরো শহর খুঁজে স্বাদ বিহীন কফি খুঁজে পাওয়া কঠিন হলেও ফ্লাইট কফি হাঙ্গার, মেমফিস বেলি এবং লামাসন ব্রিউ বার’র সেরা ফ্ল্যাট হোয়াইট পেতে পারেন।

Back to top button