অপরাধ

সাভারে মধ্যযুগীয় কায়দায় ৬ বছরের শিশুকে নির্যাতন

ঢাকা, ১৯ জানুয়ারি – ঢাকার সাভারে দোকানে ঢিল ছোড়ায় ছোয়াদ (৬) নামের এক শিশুকে মধ্যযুগীয় কায়দায় নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে স্থানীয় দোকানি শাহ আলমের বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় ভুক্তভোগী শিশুর বাবা বাদি হয়ে সাভার মডেল থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) দায়ের করেছেন।

মঙ্গলবার (১৮ জানুয়ারি) বিকেলে সাভারের উলাইলের কর্ণপাড়া এলাকার শাহ-আলমের দোকানের সামনে এ ঘটনা ঘটে।

ভুক্তভোগী ছোয়াদ সাভারের উলাইলের কর্ণপাড়া এলাকার মোখলেছুর রহমানের ছেলে। সে তার বাবা-মায়ের সঙ্গে ওই এলাকায় বসবাস করে আসছিল। অভিযুক্ত শাহ-আলম একই এলাকার মৃত আব্দুর রহিমের ছেলে। তিনি মুদি দোকান ব্যবসায়ী।

জিডি সূত্রে জানা যায়, ওই দোকানের সামনে ধুলাবালু নিয়ে খেলা করছিল শিশু ছোয়াদ। এ সময় না বুঝে দোকানে ছোট একটি ঢিল ছুড়ে মারে সে। এ সময় ক্ষিপ্ত হয়ে ছোয়াদকে পা ধরে আছাড় মারেন দোকানি শাহ আলম।

আধা ঘণ্টা ধরে পা দিয়ে লাথি ও কিল-ঘুষি মেরে প্রায় আধামরা করেন। পরে ছোয়াদের চিৎকারে তার বাবা মোখলেছ ঘটনাস্থলে গেলে ঘটনা জানতে চান। এ সময় তাদের ওপর ক্ষিপ্ত হয়ে তাদেরও মারার জন্য তেড়ে আসেন শাহ আলম।

পরে স্থানীয়দের সহযোগিতায় ছোয়াদকে উদ্ধার করে সাভার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে থানায় সাধারণ ডায়েরি করেন বাবা মোখলেছুর রহমান।

জিডির দায়িত্বপ্রাপ্ত তদন্ত কর্মকর্তা সাভার মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) শিউলি আক্তারের মুঠোফোনে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করেও তাকে পাওয়া সম্ভব হয়নি।

সূত্র : বার্তা২৪
এন এইচ, ১৯ জানুয়ারি

Back to top button