ঢালিউড

শিমুকে হত্যা করে স্বামী, লাশ গুম করেছে ফরহাদ : পুলিশ সুপার

ঢাকা, ১৮ জানুয়ারি – কেরানিগঞ্জে চিত্রনায়িকা রাইমা ইসলাম শিমুর বস্তাবন্দি মরদেহ উদ্ধারের ঘটনায় তার স্বামী নোবেল ও নোবেলের বন্ধু ফরহাদকে আটক করা হয়েছে। পুলিশ জানিয়েছে, দাম্পত্য কলহের জের ধরে তাকে (শিমু) হত্যা করেছে স্বামী নোবেল। আর লাশ গুমে সে বন্ধু ফরহাদের সহযোগিতা নেয়।

মঙ্গলবার দুপুরে ওই ঘটনার বিষয়ে ঢাকা জেলা পুলিশ সুপার কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে শিমুর স্বামী নোবেল ও লাশ গুমের ঘটনায় নোবেলের বন্ধু ফরহাদের সংশ্লিষ্টতার কথা জানান এসপি মারুফ।

এর আগে সোমবার সকাল ১০ টায় কেরানীগঞ্জ থেকে চিত্রনায়িকা রাইমা ইসলাম শিমুর মরদেহ উদ্ধার করা হয়। তার মরদেহ উদ্ধার করে ঢাকায় স্যার সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজ (মিটফোর্ড) হাসপাতালে মর্গে রাখা হয়েছে।

পরিবার সূত্রে জানা যায়, গত রোববার কলাবাগানের বাসা থেকে নিখোঁজ হন শিমু। এই ঘটনায় কলাবাগান থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করা হয়। এরপর দিন শিমুর বস্তাবন্দি লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

এ বিষয়ে নিহত শিমুর ভাই শহিদুল ইসলাম খোকন রাতে সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, তার বোন জামাই নোবেল প্রায়ই শিমুকে মারধর করতেন। সে মাদকাসক্ত। র‌্যাব ও পুলিশের কাছে তারা হত্যার কথা স্বীকার করেছে।

এম ইউ/১৮ জানুয়ারি ২০২২

Back to top button