এশিয়া

প্রথমবারের মতো বেইজিংয়ে শনাক্ত হলো ওমিক্রন

বেইজিং, ১৬ জানুয়ারি – চীনের রাজধানী বেইজিংয়ে প্রথম স্থানীয় ভাবে ওমিক্রনের কেস শনাক্ত হয়েছে। বেইজিংয়ের কর্মকর্তারা এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। উইন্টার অলিম্পিক গেমস শুরুর কয়েক সপ্তাহ আগেই স্থানীয়ভাবে সেখানে ওমিক্রন শনাক্ত হলো।

শনিবার রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনের খবরে বলা হয়েছে, নতুন করে আক্রান্তদের মধ্যে একজনের ওমিক্রন শনাক্ত হয়েছে। এক সংবাদ সম্মেলনে বেইজিংয়ের ডিজেজ কন্ট্রোল অথরিটির এক কর্মকর্তা বলেন, ল্যাব টেস্টের মাধ্যমে একজনের দেহে ওমিক্রন ভ্যারিয়েন্ট শনাক্ত হয়েছে।

মাত্র একদিন আগেই দক্ষিণাঞ্চলীয় ঝুহাই শহরের বাসিন্দাদের ওপর ভ্রমণে বিধিনিষেধ জারি করা হয়। সাতজনের দেহে নতুন করে করোনা শনাক্ত হওয়ায় পুরো শহরের সব বাসিন্দার করোনা পরীক্ষা করা হচ্ছে।

গত কয়েক সপ্তাহে দেশজুড়ে লাখ লাখ মানুষকে বাড়িতে থাকার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। অভ্যন্তরীণ ফ্লাইট বাতিল করা হয়েছে এবং বিভিন্ন কারখানা বন্ধ রাখা হয়েছে। সংক্রমণ রোধে কঠোর ব্যবস্থা নিচ্ছে কর্তৃপক্ষ।

আগামী ৪ ফেব্রুয়ারি উইন্টার অলিম্পিক গেমস শুরু হওয়ার কথা রয়েছে। তার আগে যেন সংক্রমণ বাড়তে না পারে সেজন্য বিভিন্ন পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে।

স্থানীয় কর্মকর্তা প্যাং এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, রাজধানী বেইজিংয়ের হাইদিয়ান জেলায় স্থানীয়ভাবে একজনের ওমিক্রন শনাক্ত হয়েছে। ওই এলাকায় বেশ কিছু প্রযুক্তি কোম্পানির সদর দপ্তর অবস্থিত।

ঝুহাইয়ের কর্মকর্তারা স্থানীয় বাসিন্দাদের অপ্রয়োজনে শহর ছেড়ে না যাওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন। যারা কোনো প্রয়োজনে শহর ছাড়বেন তাদের অবশ্যই ২৪ ঘণ্টা আগের কোভিড টেস্টের নেগেটিভ রিপোর্ট দেখাতে হবে।

চলতি সপ্তাহের শুরুতে প্রতিবেশী ঝোংশান শহরে একজনের করোনা শনাক্ত হওয়ার পর ঝুহাই শহরে ২৪ লাখ মানুষকে গণহারে করোনা টেস্ট করা হয়। গত বৃহস্পতিবার থেকে বিউটি সেলুন, কার্ড রুম, জিম এবং সিনেমা হল বন্ধ রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়। কোভিড নিয়ন্ত্রণে জিরো টলারেন্স নীতি অনুসরণ করছে চীন।

সূত্র: জাগো নিউজ
এম ইউ/১৬ জানুয়ারি ২০২২

Back to top button

This will close in 20 seconds