ফুটবল

নতুন স্প্যানিশ কোচ হ্যাভিয়ার কাবরেরা এখন ঢাকায়

ঢাকা, ১৬ জানুয়ারি – জাতীয় দলের নতুন স্প্যানিশ কোচ হ্যাভিয়ের কাবরেরা এখন ঢাকায়। শনিবার রাত ৮টায় হযরত শাহজালাল (র.) আন্তর্জাতিক বিমান বন্দরে এসে পৌঁছেন ব্রিটিশ কোচ জেমি ডে’র এই উত্তরসূরী। কাবরেরা বাংলাদেশের তৃতীয় স্প্যানিশ কোচ। এর আগে সংক্ষিপ্ত সময়ের জন্য হলেও আরও দুই স্প্যানিশ কোচ গঞ্জালো মরেনো ও অস্কার ব্রুজোন জাতীয় দলের কোচ হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন।

হাভিয়ের বাংলাদেশের ২৩তম বিদেশি কোচ। ইন্দোনেশিয়ার বালিতে ফিফা উইন্ডোতে ২৪ ও ২৭ জানুয়ারি দু’টি প্রীতি ম্যাচ খেলার ভাবনা থেকেই দ্রুত এই কোচকে চুক্তি করায় বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে)। কিন্তু জাতীয় দলের অধিকাংশ ফুটবলারের দুই ডোজ করোনা ভ্যাকসিন না থাকায় ওই সফর বাতিল করতে বাধ্য হয় দেশের ফুটবলের সর্বোচ্চ এই সংস্থাটি। ফলে বাংলাদেশে এলেও জাতীয় দল নিয়ে আপাতত কোন অ্যাসাইনমেন্ট নেই কাবরেরার।

ফলে ঘরোয়া ফুটবল দেখেই সময় কাটাতে হবে তাকে। এরমধ্যে ফুটবলারদের সঙ্গে বিভিন্ন বিষয় শেয়ার করবেন বলে জানা গেছে। জাতীয় দলের বাইরে বয়সভিত্তিক দলের সঙ্গেও সুযোগ পেলে কাজ করবেন কাবরেরা। ৩৭ বছর বয়সী স্প্যানিশ এই কোচের সঙ্গে ১১ মাসের চুক্তি করে বাফুফে।

এ বছরের ডিসেম্বরে শেষ হবে কাবরেরার মেয়াদ। ইন্দোনেশিয়া সফর বাতিল হওয়ায় এখন মার্চে আরেকটি ফিফা উইন্ডোর দিকে চোখ বাফুফের। তার আগে ৪০ থেকে ৫০ জন ফুটবলারের তালিকা করবে বাফুফে। জাতীয় দল ও অনূর্ধ্ব-২৩ দলের খেলোয়াড়দের ভ্যাকসিনেশন নিশ্চিত করার চেষ্টাও করবে।

উপমহাদেশে কাজ করার ভালো অভিজ্ঞতা রয়েছে কাবরেরার। ২০১৩ থেকে ২০১৫ সাল পর্যন্ত ভারতের স্পোর্টিং গোয়ার মূল দলের সহকারী কোচের দায়িত্বে ছিলেন তিনি। পাশাপাশি টেকনিক্যাল ডিরেক্টর হিসেবে ভারতের ক্লাবটির একাডেমির বিভিন্ন পর্যায়ের খেলোয়াড়দের দীক্ষা দেন কাবরেরা।

২০১৮ সালের মে মাস থেকে আগষ্ট পর্যন্ত চার মাস বার্সা একাডেমিক নর্দান ভার্জিনিয়া শাখায় কাজ করেছেন তিনি। এরপর লা লিগার টেকনিক্যাল ডিরেক্টরের দায়িত্ব পালন করেন ২০২০ সাল পর্যন্ত। এদিকে কাগজে-কলমে এখনো জাতীয় দলের কোচ হিসেবে রয়েছেন ব্রিটিশ জেমি ডে। মাসে মাসে বেতনও দিতে হচ্ছে ব্রিটিশ এ কোচকে। আগষ্ট মাস পর্যন্ত তার সঙ্গে চুক্তি আছে। চুক্তির মেয়াদ পর্যন্ত বেতন দিতে হবে জেমিকে। তবে বাফুফে চাইছে আলোচনা করে একটা সমাধানে আসতে চাইছে বলে জানা গেছে।

সূত্র : বাংলাদেশ জার্নাল
এন এইচ, ১৬ জানুয়ারি

Back to top button