জাতীয়

রায় শুনে যা বললেন পায়েলের মা

ঢাকা, ০১ নভেম্বর- নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী সাইদুর রহমান পায়েল হত্যা মামলায় হানিফ পরিবহনের চালক, সহকারী ও সুপারভাইজারের ফাঁসির আদেশ দিয়েছেন আদালত।

ঢাকার দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনাল-১ এর বিচারক রবিবার দুপুরে এই রায় দেন।

রায়ে সন্তোষ প্রকাশ করেছে পায়েলের পরিবার। পায়েলের পরিবার জানিয়েছে, তারা ন্যায়বিচার পেয়েছেন। পায়েলের গণমাধ্যমকে মা বলেন, প্রধানমন্ত্রীর কাছে ন্যায়বিচার চেয়েছিলাম, সে বিচার আমরা পেয়েছি।

তবে রায়ের বিরুদ্ধে উচ্চ আদালতে আপিল করা হবে বলে জানিয়েছেন আসামিপক্ষের আইনজীবীরা।

এর আগে বেলা ১২টার দিকে তিন আসামিকে আদালতে হাজির করা হয়।

২০১৮ সালের ২১ জুলাই দায় এড়াতে আহত পায়েলকে সেতুর ওপর থেকে নদীতে ফেলে দেয় হানিফ পরিবহনের চালক, তার সহকারী ও সুপারভাইজার। পরে ২৩ জুলাই মুন্সিগঞ্জের ভাটেরচর সেতুর নিচ থেকে তার লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

এর আগে বাদীপক্ষের আইনজীবী জানান, তিন আসামিই অপরাধ স্বীকার করায় সর্বোচ্চ সাজা আশা করছেন তারা।

পায়েলের স্বজনরা বলেন, এই অপরাধের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি না হলে পরিবহন খাতের উচ্ছৃঙ্খল শ্রমিকদের হাতে যাত্রীরা আরও জিম্মি হয়ে পড়বে।

সূত্র: বাংলাদেশ প্রতিদিন

আর/০৮:১৪/১ নভেম্বর

Back to top button