এশিয়া

ধাতব বাক্সে রাখা হচ্ছে করোনা রোগীদের

বেইজিং, ১৩ জানুয়ারি – ‘শূন্য কোভিড’ নীতির আওতায় চীনা নাগরিকদের উপর বেশ কিছু কঠোর নিয়ম আরোপ করেছে দেশটির সরকার। লাখ লাখ মানুষকে কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। এসবের পাশাপাশি এবার সংক্রমণ রুখতে দেশটিতে নতুন এক নিয়ম চালু করা হয়েছে।

ভারতীয় গণমাধ্যম এনডিটিভির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, নতুন এই নিয়মের একটি ভিডিও সম্প্রতি চীনের সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। এতে দেখা গেছে, যারা করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন বলে সন্দেহ করা হচ্ছে তাদেরকে, এমনকি গোটা এলাকায় একজনের করোনা পজিটিভ শনাক্ত হলেও ওই এলাকার সবাইকে ধাতব বাক্সে কমপক্ষে সাতদিন বাধ্যতামূলক আইসোলেশনে রাখার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। এদের মধ্যে অন্তঃসত্ত্বা নারী, শিশু এবং বয়স্করাও রয়েছেন।

প্রকাশিত ওই প্রতিবেদনে আরও বলা হয়েছে, কোনো কোনো এলাকায় বাসিন্দাদের মধ্যরাতের পরেই বাড়ি ছেড়ে কোয়ারেন্টাইন কেন্দ্রে যেতে বলা হচ্ছে।

চীনে করোনার সংক্রমণ ছড়ানোর পর থেকে ট্রেস-অ্যান্ড-ট্র্যাক অ্যাপ চালু করা হয়েছে। এই অ্যাপ ব্যবহারও বাধ্যতামূলক করা হয়েছে নাগরিকদের জন্য। মূলত এই অ্যাপ দিয়েই রোগীর সংস্পর্শে আসা ব্যক্তিদের শনাক্ত করা হয়।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, চীনে এখন প্রায় ২ কোটি মানুষ বাড়িতে আইসোলেশনে রয়েছেন। তাদেরকে খাবার কেনার জন্যও বাড়ি থেকে বের হতে নিষেধ করা হয়েছে।

২০১৯ সালে চীনে প্রথম করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়। এরপরই দেশটিতে সংক্রমণ রোধে কঠোর লকডাউন এবং করোনা শনাক্তের জন্য গণ নমুনা পরীক্ষা চালু করা হয়। ।

সূত্র: সমকাল
এম ইউ/১৩ জানুয়ারি ২০২২

Back to top button