জাতীয়

দেশে আরো ৯ জনের ওমিক্রন শনাক্ত

ঢাকা, ১০ জানুয়ারি – দেশে আরও ৯ জনের শরীরে মহামারি করোনা ভাইরাসের নতুন ধরন ওমিক্রন শনাক্ত হয়েছে। শনাক্ত ব্যক্তিরা সকলে রাজধানী ঢাকায় অবস্থান করছেন। ফলে এখন পর্যন্ত দেশে ৩০ জনের ওমিক্রন শনাক্ত হয়েছে।

সোমবার জার্মানির গ্লোবাল ইনিশিয়েটিভ অন শেয়ারিং অল ইনফ্লুয়েঞ্জা (জিআইএসএআইডি) তাদের শরীর থেকে নেওয়া ভাইরাসের নমুনার জিন বিন্যাস বিশ্লেষণ করে ওমিক্রন শনাক্তের কথা প্রকাশ করেছে।

নতুন শনাক্ত ৯ জনের মধ্যে ছয়জন রাজধানীর মহাখালী এলাকার এবং বাকি তিনজন বাসাবোর বাসিন্দা।

মহাখালীর বাসিন্দাদের মধ্যে ছয়জন নারী, তাদের বয়স ১৮ থেকে ৫২ বছরের মধ্যে। আর বাসাবোতে যাদের ওমিক্রন ধরা পড়েছে, তাদের দুজন ৫১ ও ৩০ বছর বয়সী পুরুষ এবং একজন ৫৬ বছর বয়সী নারী।

জিআইএসএআইডি জানিয়েছে, ২৯ ডিসেম্বর থেকে ৩ জানুয়ারির মধ্যে বিভিন্ন সময় তাদের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছিল। এসব নমুনার জিনোম সিকোয়েন্স করে তা জিআইএসএআইডিতে জমা দিয়েছে ইন্টারন্যাশনাল সেন্টার ফর ডায়রিয়া ডিজিজ রিসার্স সেন্টার, বাংলাদেশ-আইসিডিডিআর,বি।

আইইডিসিআরের প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ডা. এ এস এম আলমগীর জানিয়েছিলেন, বিদেশফেরত কারও কোভিড ধরা পড়লে তাদের শরীর থেকে ভাইরাসের নমুনা নিয়ে জিনোম সিকোয়েন্সিং করা হচ্ছে।

পাশাপাশি আক্রান্তদের সংস্পর্শে এসেছেন এমন ব্যক্তিদের কাছ থেকে নমুনা নিয়েও জিনোম সিকোয়েন্স করা হচ্ছে। আক্রান্তদের সংস্পর্শে এসে দেশেও কয়েকজন আক্রান্ত হওয়ার তথ্য পেয়েছে আইইডিসিআর।

এর আগে, বাংলাদেশে ৮ জানুয়ারি একজনের, ৬ জানুয়ারি ১০ জনের, ৩১ ডিসেম্বর তিনজনের, ২৮ ডিসেম্বর সন্ধ্যায় একজন ও একই দিন রাতে তিনজনের এবং ২৭ ডিসেম্বর রাতে একজনের শরীরে করোনার ওমিক্রন ধরন শনাক্ত হওয়ার তথ্য জানায় জিআইএসএআইডি। গত ১১ ডিসেম্বর দেশে সর্বপ্রথম জিম্বাবুয়েফেরত বাংলাদেশি দুই নারী ক্রিকেটার ওমিক্রনে আক্রান্ত হয় বলে জানিয়েছিল স্বাস্থ্য অধিদপ্তর।

সূত্র: বাংলাদেশ জার্নাল
এম ইউ/১০ জানুয়ারি ২০২২

Back to top button