রাজশাহী

বাগমারায় একই ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য হলেন স্বামী-স্ত্রী!

রাজশাহী, ১০ জানুয়ারি – সারাদেশে পঞ্চম ধাপে ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনের তারিখ নির্ধারিত হওয়ার পর থেকে প্রতিদিন এক দম্পতি মাঠে কাজ করেছেন। দিন শেষে রাতে বাড়ি ফিরে রান্না ও সাংসারিক কাজ করেছেন স্ত্রী।

তবে দুজন মানুষের প্রচেষ্টা এত বড় সফলতা এনে দেবে কল্পনাতীত ছিল। যদিও নির্বাচনের পর ফলাফল ঘোষণা হলে সবাই চমকে যান৷ কারণ তারা একসঙ্গে রাজশাহীর বাগমারার দ্বীপপুর ইউপি নির্বাচনে নির্বাচিত হয়েছেন। স্বামী সাধারণ সদস্য ও স্ত্রী সংরক্ষিত মহিলা ওয়ার্ডের সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন। নির্বাচিত সদস্য দুজন হলেন- ইয়ার উদ্দিন ও হাছিনা বানু। গত ৫ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত নির্বাচনে জয়লাভ করেছেন তারা।

রাজশাহীর বাগমারা উপজেলা নির্বাচন অফিস সূত্রে জানা যায়, ইয়ার উদ্দিন ৬ নম্বর ওয়ার্ডের সাধারণ সদস্য পদে ও তার স্ত্রী হাসিনা বানু সংরক্ষিত মহিলা ওয়ার্ড (৪, ৫ ও ৬) থেকে নির্বাচন করে জয়ী হন।

এমন সাফল্যের বিষয়ে জানতে চাইলে ইয়ার উদ্দিন বলেন, আমার স্ত্রীকে জনপ্রতিনিধি হিসেবে কাজ করতে দেখেছি। তবে অনেক সময় নারীরা নির্বাচিত হওয়ার পরও নানা প্রতিবন্ধকতায় সেভাবে কাজ করতে পারে না। তাই নারীরা যেন কোনো অধিকার থেকে বঞ্চিত না হয় সেজন্য নিজেই নির্বাচনের প্রার্থী হয়েছিলাম। তবে ভোটাররা আমাদের এভাবে গ্রহণ করবে ভাবিনি। আমাদের প্রতি আস্থা রাখায় সবার প্রতি অনেক কৃতজ্ঞতা।

এ বিষয়ে হাছিনা বানু বলেন, আমরা প্রতিদিন সকালে নির্বাচনের প্রচারণার আলাদাভাবে বের হয়েছি। তারপর বিভিন্ন এলাকায় জনসংযোগ ও আগামী দিনের কর্মপরিকল্পনা জানিয়েছি। সবাই আমাদের খুব ভালোভাবে গ্রহণ করেছে তাই আমরা জয়ী হয়েছি। আগামীতে দুজন মিলে এলাকার সর্বোচ্চ উন্নয়নের চেষ্টা করবো।

এ ঘটনায় স্থানীয় বাসিন্দা ও বাগমারা উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মমতাজ আক্তার বলেন, তাদের বিজয় এলাকায় নতুন চমক। তারা স্থানীয় মানুষদের আস্থা অর্জন করতে পেরেছেন বলেই বিজয়ী হয়েছে। আশা করবো ইউনিয়নে ভালো কাজ হবে।

সূত্র : বাংলানিউজ
এন এইচ, ১০ জানুয়ারি

Back to top button