ফুটবল

আবারও ড্র’য়ে সন্তুষ্ট পিএসজি

লিগ-ওয়ানের অর্ধেক পেরিয়ে এসে কোথায় যেন ছন্দ কাঁটার সুর টেবিল টপার প্যারিস সেইন্ট জার্মেইনের (পিএসজি)। ২০তম রাউন্ডের খেলায় অলিম্পিক লিওঁ’র মাঠ থেকে ১-১ গোলের ড্র নিয়ে ফিরেছে মরিসিও পচেত্তিনোর দল। লিগে শেষ পাঁচ ম্যাচে এটি চতুর্থ ড্র তাদের, টানা দ্বিতীয়। যেখানে প্রথম ১৫ ম্যাচে ছিলো মাত্র এক হার আর এক ড্র।

দলের সবচেয়ে বড় দুই তারকা মেসি নেইমার বাদেই লিওঁ’র বিপক্ষে মাঠে নেমেছিলো প্যারিসের ক্লাবটি। করোনার কারণে নেই লিওনেল মেসি আর ইঞ্জুরির কারণে অনেক দিন ধরেই দলের বাইরে ব্রাজিলিয়ান নেইমার। তবে বর্তমান ফুটবলের তরুণ পোস্টার বয় কিলিয়ান এমবাপ্পে ছিলেন পিএসজির একাদশে।

লিওঁ’র মাঠে আতিথেয়তা নিতে গিয়ে ম্যাচের শুরুতেই গোল খেয়ে পিছিয়ে পড়ে পিএসজি। লিওঁ’র ব্রাজিলিয়ান মিডফিল্ডার লুকাস পাকুয়েতা মাত্র ৭ মিনিটেই উল্লাসে মাতান স্বাগতিক দর্শকদের। মাঝমাঠ থেকে ব্রুনো গুইমারেজের থ্রু পাস রিসিভ করে পোস্টের কোনাকুনি শটে পিএসজির জালে বল জড়ান পাকুয়েতা।

এরপর পুরো ম্যাচেই আক্রমণ-পাল্টা আক্রমণ করে গেছে দুই দল। তবে গোল করতে আর পারেনি কেউই। বল দখলে পচেত্তিনোর শিষ্যরা এগিয়ে থাকলেও গোলমুখে শট নিয়েছে লিওঁ’র খেলোয়াড়রাই বেশি।

দারুণ জমজমাট এই ম্যাচে এক পর্যায়ে মনে হচ্ছিলো পিএসজি মনে হয় এই মৌসুমে দ্বিতীয় হারের স্বাদ পেতে চলেছে। তবে দলের ত্রাতা হয়ে আসেন কলিন দাগবার বদলি হয়ে মাঠে নামা থিলো কেহরার। ৬৯ মিনিটে মাঠে নামার মাত্র ৭ মিনিটের মাথাতেই দলকে সমতায় ফেরানো গোলটি করেন এই সেন্টার ব্যাক। ডি-বক্সের ডান দিক থেকে ফাকায় বল পাওয়া কেহরার নিচু শটে বল জালে জড়িয়ে স্বস্তি এনে দেন দলকে।

এরপরের বাকিটা সময়ও খেলা চলেছে উত্তেজনা নিয়েই। দুই দলই জয়সূচক গোল পেতে পেতেও পায়নি।

তবে ম্যাচ শেষে নিজের দল আর দলের পারফরম্যান্স নিয়ে হয়তো একটু বেশিই ভাবতে হবে পিএসজি কোচ পচেত্তিনোকে। টানা দ্বিতীয় ম্যাচে ড্র করে পয়েন্ট হারালেও অবশ্য খুব বেশি ক্ষতি হয়নি তাদের। ২০ ম্যাচ শেষে ৪৭ পয়েন্ট নিয়ে লিগ টেবিলের শীর্ষস্থান বেশ মজবুত ভাবেই ধরে রেখেছে তারা। ১১ পয়েন্টে পিছিয়ে টেবিলের দুইয়ে থাকা নিসে’র পয়েন্ট যে সমান ম্যাচে ৩৬।

সূত্র : বাংলাদেশ জার্নাল
এন এইচ, ১০ জানুয়ারি

Back to top button