অস্ট্রেলিয়া

অস্ট্রেলিয়ায় একদিনে করোনা শনাক্ত ১ লাখ ১৬ হাজার

 

ক্য়ানবেরা, ০৮ জানুয়ারি – বিশ্বে উচ্চ হারে টিকা নেওয়া দেশগুলোর মধ্যে অস্ট্রেলিয়া অন্যতম হলেও করোনা মহামারির সঙ্গে লড়াইয়ে দেশটি হিমশিম খাচ্ছে। আজ দেশটিতে ১ লাখ ১৬ হাজার জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে।

গত ২ বছরের মধ্যে অস্ট্রেলিয়ায় এই প্রথমবারের মতো একদিনে শনাক্তের সংখ্যা ১ লাখ ছাড়ালো।

সংক্রামক রোগ বিশেষজ্ঞ রবার্ট বয় এসবিএস নিউজকে বলেছেন, ‘ওমিক্রনের কারণে শনাক্ত সংখ্যা শিগগির আরও বাড়বে।’

বেশ কয়েকজন শীর্ষস্থানীয় রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব ওমিক্রনে আক্রান্ত হওয়ার পর আরও বেশি আতঙ্কিত হয়ে পড়েছেন অস্ট্রেলিয়ার বাসিন্দারা।

দেশটির সাবেক প্রধানমন্ত্রী ম্যালকম টার্নবুল সংক্রমিত হয়ে আইসোলেশনে আছেন। করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ফেডারেল ট্রেজারার জশ ফ্রাইডেনবার্গ। বিরোধী দলীয় সংসদ সদস্য অ্যান্ড্রু জাইলসও জানিয়েছেন যে তিনি করোনা পজেটিভ হয়েছেন।

অস্ট্রেলিয়ার ৮টি রাজ্যের মধ্যে আজ সবচেয়ে বেশি শনাক্ত হয়েছে ভিক্টোরিয়ায়। এ রাজ্যে ৫১ হাজার ৩৫৬ জনের করোনা শনাক্ত হয়। গতকাল এই সংখ্যা ছিল ২২ হাজার। আজ ভিক্টোরিয়ায় ৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। হাসপাতালে ভর্তি আছেন ৬৪৪ জন।

ভিক্টোরিয়ার স্বাস্থ্যমন্ত্রী মার্টিন ফোলি বলেছেন, ‘আজকের শনাক্তের সংখ্যা প্রমাণ করছে কমিউনিটিতে কি সংখ্যায় কোভিড-১৯ সংক্রমণ হচ্ছে।’

নিউ সাউথ ওয়েলসে আজ আক্রান্ত হয়েছেন ৪৫ হাজার ৯৮ জন। ৯ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। ১ হাজার ৮০০ জন রোগী হাসপাতালে ভর্তি আছেন। নিবিড় পরিচর্যায় আছেন ১৪৫ জন।

আজ থেকে আগামী ২৭ জানুয়ারি পর্যন্ত নিউ সাউথ ওয়েলস রাজ্যে সব পাব, নাইটক্লাব, বার ও আতিথেয়তার স্থানগুলোতে কোনও গান ও নাচের অনুমতি থাকবে না।

রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী ডমিনিক পেরোটেট বলেছেন, ‘ক্রমবর্ধমান ওমিক্রনের আঘাত মোকাবিলা করতে এই বিধিনিষেধ।’

তাসমানিয়ায় আজ একদিনে ২ হাজার ২২৩ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। অন্যান্য রাজ্যগুলোর মধ্যে কুইন্সল্যান্ডে ১১ হাজার ১৭৪ জনের, সাউথ অস্ট্রেলিয়া ৪ হাজার ২৭৪ জনের এসিটিতে ১ হাজার ৩০৫ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে।

এই হিসাব শুধু পিসিআর পরীক্ষার ফলাফল। রাজ্যগুলোতে র‍্যাপিড অ্যান্টিজেন পরীক্ষার ফলাফল এখনও আসেনি। কারণ রাজ্যগুলো এখনও সেই পরিসংখ্যানগুলো রেকর্ড করার জন্য কোন সিস্টেম তৈরি করেনি।

সূত্র: ডেইলি স্টার
এম ইউ/০৮ জানুয়ারি ২০২২

Back to top button