দক্ষিণ এশিয়া

ভারতের পাঁচ রাজ্যে বিধানসভা নির্বাচনের তারিখ ঘোষণা

নয়াদিল্লি, ০৮ জানুয়ারি – করোনার আবহের মধ্যে ভারতের পাঁচ রাজ্যে ভোটের দিনক্ষণ ঘোষণা করা হয়েছে। শনিবার বিকেলে ভারতের নির্বাচন কমিশন এ দিনক্ষণ ঘোষণা করে।

এ রাজ্যগুলো হলো- উত্তরপ্রদেশ, পাঞ্জাব, গোয়া, মণিপুর ও উত্তরাখণ্ড। এর আগে ২০১৭ সালের ফেব্রুয়ারি থেকে ৮ মার্চ পর্যন্ত ওই পাঁচ রাজ্যে বিধানসভা নির্বাচন হয়।

ভারতের নির্বাচন কমিশন সূত্রের বরাত দিয়ে আনন্দবাজার অনলাইন জানায়, মণিপুরে দুই দফায় ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। প্রথম দফা ভোট হবে আগামী ২৭ ফেব্রুয়ারি; ৩ মার্চ হবে দ্বিতীয় দফায় ভোট।

উত্তরপ্রদেশে ভোট হবে সাত দফায়। সেখানে প্রথম দফা ভোট ১০ ফেব্রুয়ারি, দ্বিতীয় দফা ১৪ ফেব্রুয়ারি, তৃতীয় দফা ২০ ফেব্রুয়ারি, চতুর্থ দফা ২৩ ফেব্রুয়ারি, পঞ্চম দফা ২৭ ফেব্রুয়ারি, ষষ্ঠ দফা ৩ মার্চ এবং সপ্তম দফা ভোট ৭ মার্চ অনুষ্ঠিত হবে।

পাঞ্জাব, উত্তরাখণ্ড এবং গোয়ায় ১৪ ফেব্রুয়ারি নির্বাচন হবে। এ তিন রাজ্যে ভোট হবে এক দফায়।

ভারতের নির্বাচন কমিশনের তথ্য অনুয়ায়ী, নির্বাচনকে কেন্দ্র করে ১৫ জানুয়ারি পর্যন্ত কোনও জনসভা করা যাবে না। সেইসঙ্গে রাত ৮টার পর নির্বাচনী প্রচার চালানোর ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে।

ভারতের প্রধান নির্বাচন কমিশনার সুশীল চন্দ্র বলেন, ভার্চুয়াল বা ডিজিটাল মাধ্যম নির্বাচনী প্রচার চালানোর ওপর জোর দিতে হবে। পদযাত্রা, রোড শো, র‌্যালি করা যাবে না।

প্রত্যেক দলকে তাদের প্রার্থী সম্পর্কে তথ্য সবিস্তারে দলীয় ওয়েবসাইটে আপলোড করতে হবে। প্রার্থীদের কারও বিরুদ্ধে ফৌজদারি মামলা রয়েছে কি না তা-ও জানাতে হবে।

ভোট পরিচালনার দায়িত্বে থাকবেন ৯০০ পর্যবেক্ষক। নতুন নির্দেশনায় বাড়ানো হয়েছে নির্বাচনে খরচের ঊর্ধ্বসীমা।

ভারতের নির্বাচন কমিশনের প্রধান নির্বাচন কমিশনার জানান, এক লাখেরও বেশি বুথে ওয়েব কাস্টিংয়ের ব্যবস্থা থাকবে।

নারীদের জন্য নারীদের দ্বারা পরিচালিত ভোটকেন্দ্র থাকবে। ১ হাজার ৬২০টি নারী পরিচালিত ভোটকেন্দ্রের ব্যবস্থা করা হয়েছে।

১৮ কোটি ৩০ লাখ ভোটার ভোট দেবেন এ পাঁচ রাজ্যে।

কোভিড পরিস্থিতিতে নির্বাচন করাকে একটা চ্যালেঞ্জ বলে মন্তব্য করেছেন ভারতের প্রধান নির্বাচন কমিশনার।

সূত্র: বাংলাদেশ জার্নাল
এম ইউ/০৮ জানুয়ারি ২০২২

Back to top button