জাতীয়

শেরপুর থেকে পাবলিক বাসে ঢাকায় এলেন মতিয়া চৌধুরী

ঢাকা, ০৭ জানুয়ারি – বেগম মতিয়া চৌধুরী, এমপি। আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য। সাবেক কৃষিমন্ত্রী ও কৃষি মন্ত্রণালয় সংক্রান্ত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি। প্রবীণ এই রাজনীতিক চলাফেরায় ব্যতিক্রম, অনন্য, সাধারণ। প্রতি বারের মতো বৃহস্পতিবারও পাবলিক বাসে চড়েই নিজ নির্বাচনী এলাকা শেরপুর থেকে ঢাকায় ফিরেছেন। সোনার বাংলা পরিবহনের একটি বাসে শেরপুর থেকে ঢাকা আসেন তিনি। এমন একটি ছবি ফেসবুকে ভাইরাল হয়েছে।

স্থানীয় নেতাকর্মীরা জানান, ৬ জানুয়ারি (বৃহস্পতিবার) দুপুরে সোনার বাংলা সার্ভিসের একটি বাসযোগে নকলার জালালপুর থেকে ঢাকার উদ্দেশ্যে রওনা দেন মতিয়া চৌধুরী। এ সময় স্থানীয় নেতাকর্মীরা তাকে বিদায় জানান।

পাবলিক বাসে বসা মতিয়া চৌধুরীর ওই ছবি নিজের ফেসবুক ওয়ালে পোস্ট করে বিএফইউজের সাবেক সভাপতি মনজুরুল আহসান বুলবুল লিখেছেন, ‘এজন্যই তিনি ব্যতিক্রম…। মতিয়া আপার বাসায় একবার আমার যাওয়ার সুযোগ হয়েছিল। তার রাজনৈতিক দর্শন বা ব্যক্তিগত পছন্দ-অপছন্দ নিয়ে কথা হতেই পারে। কিন্তু তার সততা সাদামাটা জীবন, এগুলো নিয়ে মুগ্ধ হওয়া ছাড়া উপায় নেই। আর এ সাধারণ জীবনযাপনই তাকে অসাধারণ করে তুলেছে। জানি বিলাসী জীবনযাপন করা রাজনীতিবিদরা তাদের কাছ থেকে কিছু শিখবে না। সৈয়দ আশরাফ, মতিয়া চৌধুরীদের জন্য তাই আজীবন ভালোবাসা।’

ছাত্রজীবন থেকেই অনেক লড়াই-সংগ্রামের ধারাবাহিকতায় বেগম মতিয়া চৌধুরী বেশ আগে থেকেই জাতীয় পর্যায়ে নেতৃত্ব দিচ্ছেন এমন তথ্য প্রকাশ করে নালিতাবাড়ী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ফজলুল হক বলেন, দলের প্রভাবশালী একজন নেতা হয়েও তার সাধারণ জীবনযাপনে কোনো পরিবর্তন আসেনি। পোশাক-পরিচ্ছদ ও চলাফেরাতেও তার একই ধরন। মন্ত্রী হওয়ার পর সরকারি গাড়ি ব্যবহার করলেও তার আগে তিনি বাসেই ঢাকা-শেরপুরসহ বিভিন্ন জায়গায় যাতায়াত করতেন, এখনও তাই করছেন। এটাই তার জীবনের অনুষঙ্গ।

এ ব্যাপারে নকলা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা শফিকুল ইসলাম জিন্নাহ বলেন, আমাদের লোভ-লালসার রাজনৈতিক সংস্কৃতিতে মিতব্যয়, সততা, নিষ্ঠা, সাহসিকতা ও ত্যাগ স্বীকার প্রশ্নে বেগম মতিয়া চৌধুরীর তুলনা তিনি নিজেই। তিনি ছাত্রজীবন থেকে শুরু করে প্রগতিশীল বিভিন্ন আন্দোলন-সংগ্রামের ধারাবাহিকতায় স্বৈরাচার এবং বিএনপি-জামায়াত জোট সরকারবিরোধী আন্দোলনে যেমন এক সাহসী ও পরীক্ষিত নেতৃত্ব, তেমনি তিনি খুব সহজ ও স্বাভাবিক জীবনে অভ্যস্ত। তিনি দলের একজন কেন্দ্রীয় প্রভাবশালী নেতা হওয়ার পরও তার মাঝে কোনো অহমিকা ও উচ্চাভিলাস নেই। পাবলিক বাসে চেপে নির্বাচনী এলাকায় যাতায়াত- তার সাদামাটা জীবনযাপনেরই অংশ। আর তাই পরিচ্ছন্ন রাজনীতির প্রশ্নে তিনিই আমাদের গর্ব।

৪ জানুয়ারি (মঙ্গলবার) রাজধানী ঢাকা থেকে তার নির্বাচনী এলাকায় মেধাবী শিক্ষার্থী ও বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান ও দরিদ্র মানুষের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণের জন্য নকলায় আসেন। এরপর বুধবার ও বৃহস্পতিবার কম্বল বিতরণ করেন। বৃহস্পতিবার বিকেলে পাবলিক বাসে ঢাকার উদ্দেশ্যে রওনা দেন তিনি।

সূত্র :জাগো নিউজ
এন এইচ, ০৭ জানুয়ারি

Back to top button