দক্ষিণ এশিয়া

ওমিক্রনের বিস্তার ঠেকাতে দিল্লিতে কারফিউ

নয়াদিল্লী, ০৫ জানুয়ারি – ভারতে করোনাভাইরাস সংক্রমণের নতুন ধরন ওমিক্রনের বিস্তার বেড়ে যাওয়া দিল্লিতে সপ্তাহিক ছুটির দিন কারফিউ জারি করা হয়েছে। দিল্লির রাজ্য সরকারের ঘোষণা অনুযায়ী, শনিবার ও রোববার নয়াদিল্লি ও তার আশপাশের এলাকায় কারফিউ চলবে।

মঙ্গলবার (৪ জানুয়ারি) দিল্লির রাজ্য সরকার এই আদেশ জারি করেছে।

এর আগে ভারত করোনার ভয়াবহ পরিস্থিতি দেখেছে। দেশটিতে দৈনিক শতাধিক মানুষের করোনায় মৃত্যু হয়েছিল। এবার করোনার নতুন ধরন ওমিক্রন ঠেকাতে আগেভাগেই কারফিউ দেওয়া হয়েছে। কারণ ঊর্ধ্বমুখী হয়েছে দৈনিক সংক্রমণের হার।

মঙ্গলবার ভারতে করোনা পজিটিভ শনাক্ত হয়েছেন ৩৭ হাজার ৩৭৯ জন, যা গত বছর সেপ্টেম্বরের পর ভারতে সর্বোচ্চ দৈনিক সংক্রমণের রেকর্ড।

দিল্লির উপ-মুখ্যমন্ত্রী মনিশ সিসোদিয়া বলেন, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কর্তৃপক্ষ দু’দিন কারফিউ জারির সিদ্ধান্ত নিয়েছে। একই সঙ্গে জরুরি পরিষেবা ছাড়া সরকারি সব দপ্তরের কর্মীদেরকে বাড়ি থেকে কাজ করার নির্দেশনা দেওয়া হচ্ছে। তবে বেসরকারি প্রতিষ্ঠানগুলো ৫০ শতাংশ কর্মী নিয়ে কাজ চালাতে পারবে।

দিল্লির উপ-মুখ্যমন্ত্রী আরও বলেন, সড়কে যাত্রীদের ভিড় সামাল দিতে বাস ও মেট্রোয় আসন সংখ্যা বাড়ানো হবে। প্রকাশ্যে কেউ মাস্ক ছাড়া বের হতে পারবেন না।

ওমিক্রনের কারণে দিল্লিতে বর্ষবরণ অনুষ্ঠানে জমায়েত নিষিদ্ধ ছিল। এরপরও প্রতিদিনই করোনা পজিটিভ হিসেবে শনাক্ত হচ্ছেন ৪ হাজারের বেশি মানুষ। সোমবার রাজধানীতে শনাক্তের সংখ্যা ছিল ৪ হাজার ৯৯ জন।

ভারতের ন্যাশনাল টেকনিক্যাল অ্যাডভাইসরি গ্রুপের (এনটিজিআই) প্রধান ডা. এনকে অরোরা ভারতের সংবাদমাধ্যম এনডিটিভিকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে জানিয়েছেন, ওমিক্রনের প্রাদুর্ভাবে দিল্লি, মুম্বাই, কলকাতাসহ ভারতের বড় শহরগুলোতে লাগামহীনভাবে বাড়ছে দৈনিক আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা। আক্রান্ত এই রোগীদের ৭৫ শতাংশই ওমিক্রনের শিকার।

সূত্র : আরটিভি
এম এস, ০৫ জানুয়ারি

Back to top button