দক্ষিণ এশিয়া

দিল্লিতে এক দিনে শনাক্ত বেড়েছে ৫০ শতাংশ

নয়াদিল্লি, ০২ জানুয়ারি – আবারও ভারতে বাড়ছে করোনা সংক্রমণ। বছরের প্রথম দিন দেশটির দিল্লিতে প্রতিদিনের তুলোনায় করোনা সংক্রমণ ৫০ শতাংশ বেড়ে গেছে।

গত কয়েকদিন ধরে দিল্লিতে রেকর্ড সংখ্যক করোনা আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছে। করোনার নতুন ধরন ওমিক্রন আক্রান্তের সংখ্যাও দিন দিন বাড়ছে দেশটিতে। মহামারি শুরুর পর থেকে ভারতের দিল্লিতেই করোনায় মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২৫ হাজার ১০৮ জনে।

স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের পরিসংখ্যান থেকে জানা গেছে, শনিবার সকাল পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় দিল্লিতে ২ হাজার ৭১৬ জন নতুন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে। শনাক্তের হার প্রায় ৩ দশমিক ৬৪ শতাংশ। একই সময়ে দিল্লিতে মারা গেছেন একজন।

আশঙ্কা করা হচ্ছে ওমিক্রন ভারতের জন্যও নিয়ে আসতে পারে অশনি সংকেত। দেশটিতে ওমিক্রন আক্রান্তের সংখ্যা এখন পর্যন্ত ১৪৩১। শনিবার দিল্লিতে ওমিক্রন শনাক্ত হয়েছে ৩১ জনের। এটি নিয়ে সেখানে ওমিক্রন আক্রান্তের সংখ্যা এখন ৩৫১ জনে দাঁড়িয়েছে। তবে দিল্লির চেয়েও মহারাষ্ট্রে ওমিক্রন শনাক্তের সংখ্যা বেশি। মহারাষ্ট্রে এখন পর্যন্ত ৪৫৪ জনের ওমিক্রন শনাক্ত হয়েছে।

গত বছর করোনার ভয়াবহ কবলে পড়ে ভারত। ডেলটা ধরন কাবু করে ফেলে গোটা দেশকে। সংক্রমণের সর্বোচ্চ সময় দেশটিতে দৈনিক প্রায় ৪ লাখ রোগী শনাক্ত হয়। করোনা ঠেকাতে দিশেহারা হয়ে পড়ে দেশটি। পরে জোরদার করা হয় টিকাদান কর্মসূচি। ধীরে ধীরে সংক্রমণ কমতে শুরু করে।

২০২১ সালের নভেম্বর মাসে দক্ষিণ আফ্রিকায় সর্বপ্রথম করোনার নতুন ধরন ওমিক্রন শনাক্ত হওয়ার খবর বিশ্ববাসীকে জানায় বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা(ডব্লিউএইচও)। এরপর এটি ছড়িয়ে পড়ে বিশ্বের অন্যান্য দেশেও। ওমিক্রন এবার সবচেয়ে বেশি ধাক্কা দিয়েছে ইউরোপের দেশগুলোকে।

সূত্র: বাংলাদেশ জার্নাল
এম ইউ/০২ জানুয়ারি ২০২২

Back to top button