ঢাকা

রাজধানীর উত্তরায় তরুণীকে দলবদ্ধ ধর্ষণ, গ্রেপ্তার ৫

ঢাকা, ০১ জানুয়ারি – রাজধানীর উত্তরায় প্রেমিককে বেঁধে রেখে এক তরুণীকে দলবদ্ধ ধর্ষণের অভিযোগে উঠেছে। গত ২৪ ডিসেম্বর উত্তরা পূর্ব থানার ৬ নম্বর সেক্টরে এই ঘটনা ঘটে বলে জানা গেছে।

বৃহস্পতিবার উত্তরা এলাকা থেকে অভিযুক্ত পাঁচজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

পুলিশ জানায়, জহিরুল ইসলাম নামের এক নির্মাণশ্রমিকের সঙ্গে মুঠোফোনে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার এক তরুণীর (২৬) প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। ২৪ ডিসেম্বর ওই তরুণী উত্তরা পূর্ব থানার ৬ নম্বর সেক্টরে আসেন। ওই দিন রাতে জহিরুল তরুণীর সঙ্গে একটি নির্মাণাধীন ভবনের সামনে কথা বলছিলেন। এ সময় জহিরুলের পূর্বপরিচিত পাঁচজন তাদের জোর করে নির্মাণাধীন ভবনে নিয়ে যান।

জহিরুলের হাত-পা বেঁধে তরুণীকে ধর্ষণ করেন তারা। এ ঘটনায় গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে মামলা হয়। পুলিশ জহিরুলের পাঁচ সহকর্মী সোহেল রানা, জয়নাল আবেদীন, মঈনুল হোসেন, সুমন আলী ও মাসুম আলীকে গ্রেপ্তার করেছে।

ঢাকা মহানগর পুলিশের বিমানবন্দর জোনের অতিরিক্ত উপকমিশনার (এডিসি) তাপস কুমার দাস গণমাধ্যমকে বলেন, ঘটনার পর ওই তরুণী অসুস্থ হয়ে গ্রামে ফিরে যান। চিকিৎসার পর একটু সুস্থ হলে তিনি ঢাকায় এসে মামলা করেন। ঘটনার সত্যতা পাওয়ার পর পাঁচজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। ভুক্তভোগী তরুণীকে ঢাকা মহানগর পুলিশের ‘ভিকটিম সাপোর্ট সেন্টারে’ পাঠানো হয়েছে। ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে তার শারীরিক পরীক্ষা করা হয়েছে।

দলবদ্ধ ধর্ষণের এ ঘটনায় জহিরুলের সম্পৃক্ত থাকার কোনো প্রমাণ পাওয়া যায়নি বলে এই পুলিশ কর্মকর্তা জানিয়েছেন।

সূত্র : বাংলাদেশ জার্নাল
এন এইচ, ০১ জানুয়ারি

Back to top button

This will close in 20 seconds