বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

ই-কমার্সে আটকে থাকা টাকা জানুয়ারিতে ফেরত পাবেন গ্রাহক

ঢাকা, ২৮ ডিসেম্বর – ইভ্যালি, কিউকম, ধামাকা, ই-অরেঞ্জসহ এক ডজন ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানের কাছে আটকে থাকা অর্থ ফেরত পাবেন নতুন বছরের শুরু থেকে অর্থাৎ জানুয়ারি মাস থেকে।

পেমেন্ট গেটওয়েতে ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানগুলোর গ্রাহকের আটকে থাকা টাকা ২১৪ কোটি টাকা ফেরতের উদ্যোগ নিয়েছে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়। মামলার বাইরে থাকা ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানগুলোর গেটওয়েতে আটকা টাকা জানুয়ারি থেকে ফেরত পাবেন গ্রাহকরা। বাণিজ্য মন্ত্রণালয় সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

সূত্র মতে, গত ১৫ ডিসেম্বর এসক্রো সার্ভিসে আটকে থাকা ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানগুলোর টাকা ফেরত দেওয়া শুরু করতে পেমেন্ট গেটওয়েগুলোকে নির্দেশ দিয়েছিল বাংলাদেশ ব্যাংক।

কিন্তু ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানগুলোর বিরুদ্ধে মামলা থাকায় জটিলতায় পড়তে হয়। তাই এই অর্থ ছাড়ের জন্য ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানগুলোর বিরুদ্ধে সব মামলার তথ্য সাতদিনের মধ্যে মন্ত্রণালয়ে জানাতে পুলিশ সদর দফতরকে গত সপ্তাহে চিঠি দেওয়া হয়।

এসব তথ্য পাওয়ার ভিত্তিতে জানুয়ারির প্রথম সপ্তাহ থেকে গ্রাহকের টাকা ফেরত দেওয়া শুরু হবে। সবচেয়ে আলোচিত ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান ইভ্যালির বিষয়টি হাইকোর্টের গঠিত কমিটি দেখভাল করছে। ইভ্যালির বিষয়টি কীভাবে নিষ্পত্তি হবে সেটি নিয়ে সেই কমিটি তাদের অবজারভেশন দেবে।

বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা জানান, ডিজিটাল কমার্স সেলকে আমদানি ও অভ্যন্তরীণ বাণিজ্য অনুবিভাগের সঙ্গে যুক্ত করা হয়েছে। এই উইং নিবিড়ভাবে এটি নিয়ে কাজ করছে। মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে সাতটি বিষয়ে তাদের কাছে মতামত চেয়েছিল এবং তিনটি মিটিং করে গত ১১ নভেম্বর সেই রিপোর্ট দেওয়া হয়েছে। পাশাপাশি একটি টেকনিক্যাল কমিটিও এটি নিয়ে কাজ করেছে। গত সপ্তাহে এটি নিয়ে একটি বৈঠক হয়েছে। কীভাবে গ্রাহকের টাকা দেওয়া হবে সেটি নিয়ে কাজ করছে ডিজিটাল কমার্স সেল। এর আগে ২১ ডিসেম্বর মঙ্গলবার বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ে ই-কমার্স সংক্রান্ত এক সভা শেষে ই-কমার্সে পণ্য কিনতে গিয়ে পেমেন্ট গেটওয়েতে আটকে পড়া গ্রাহকের টাকা ফেরত দিতে পুলিশের কাছে ৭ দিনের মধ্যে ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানগুলোর মামলা সংক্রান্ত সব ধরনের তথ্য চেয়েছিলো বাণিজ্য মন্ত্রণালয়।

সূত্র : বাংলাদেশ জার্নাল
এন এইচ, ২৮ ডিসেম্বর

Back to top button