মাদারীপুর

ভোটকেন্দ্রে গোলাম রাব্বানীকে কুপিয়ে জখম

মাদারীপুর, ২৬ ডিসেম্বর – ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে প্রতিপক্ষের হামলায় আহত হয়েছেন ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী। রোববার বিকাল ৩টার দিকে মাদারীপুর রাজৈর উপজেলার ইশিবপুর ইউনিয়নের গাংকান্দি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে হামলার শিকার হন তিনি।

প্রত্যক্ষদর্শী ও স্থানীয়রা জানান, ইউপি নির্বাচনে ইশিবপুর ইউনিয়নে গোলাম রাব্বানীর মামা সালাহ উদ্দিন আহমেদ চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। নির্বাচনে মামার পক্ষে বেশ কিছু দিন ধরেই তিনি প্রচার-প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছেন।

রোববার ভোটগ্রহণ চলাকালীন ৭নং ওয়ার্ডের গাংকান্দি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে প্রতিপক্ষ মোশারফ মোল্লার লোকজন ভোট কেটে নেওয়ার চেষ্টা করছে— এ খবর শুনে গোলাম রাব্বানী সেখানে গেলে মোশারফ মোল্লার ছেলে তার ওপর চড়াও হয়। একপর্যায়ে গোলাম রাব্বানীকে ছুরি দিয়ে কোপ দেয়। এ সময় রাব্বানী ফেরাতে গেলে তার ডান হাতের দুইটি আঙুল কেটে যায়। পরে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় উভয়পক্ষের আরও ৫ জন আহত হন।

পরে স্থানীয়রা গোলাম রাব্বানীসহ আহতদের রাজৈর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। সেখানে রাব্বানীর হাতে সেলাই দিয়ে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

গোলাম রাব্বানী জানান, রোববার বিকাল ৩টার দিকে রাজৈর উপজেলার ইশিবপুর ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ডের গাংকান্দি কেন্দ্রে তার মামা চেয়ারম্যান প্রার্থী সালাহউদ্দিনের (গিটার মার্কা) পক্ষে কেন্দ্র পরিদর্শনে গেলে জাল ভোট প্রদানে বাধা দেওয়ায় প্রতিপক্ষ ইউপি চেয়ারম্যান প্রার্থী মোশারফ মোল্লার নির্দেশে তার ছেলে সোহেল মোল্লা ও তার লোকজন ধারালো অস্ত্র নিয়ে হামলা চালায়। এ হামলা প্রতিরোধ করার সময় তার ডান হাত রক্তাক্ত জখম হয় এবং তার বন্ধু এসএম টিপু আহত হন।

তিনি অভিযোগ করেন, নির্বাচনে ইশিবপুর, হাসানকান্দি ও গাংকান্দি শাখারপাড় কেন্দ্রসহ বিভিন্ন কেন্দ্রে জাল ভোট প্রদানসহ বিভিন্ন অনিয়ম প্রসঙ্গে অভিযোগ করা হলেও পুলিশ কোনো পদক্ষেপ নেয়নি। এ ব্যাপারে মামলা করা হবে।

ওসি শেখ সাদিক জানান, অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

সূত্র: যুগান্তর
এম ইউ/২৬ ডিসেম্বর ২০২১

Back to top button