এশিয়া

চীনে এক কোটি ৩০ লাখ মানুষ লকডাউনে

বেইজিং, ২৪ ডিসেম্বর – করোনাভাইরাসের সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে এবার চীনের উত্তরপশ্চিমাঞ্চলীয় প্রদেশ শানজির প্রধান শহর জিয়ানে লকডাউন জারি করা হয়েছে।

এর ফলে দেশটিতে শীতকালীন অলিম্পিক শুরুর আগে কার্যত গৃহবন্দি হয়ে পড়েছেন শহরটির ১ কোটি ৩০ লাখ মানুষ। বৃহস্পতিবার এক ঘোষণায় এই লকডাউনের আদেশ দেয় চীনের সরকার। খবর আলজাজিরার।

এখন পর্যন্ত জিয়ানে ওমিক্রনে আক্রান্ত কোনো রোগী পাওয়া যায়নি, তবে শহরটিতে করোনা সংক্রমণ বাড়ছে। গত ১৭ ডিসেম্বর থেকে এখন পর্যন্ত টানা ছয়দিনে প্রতিদিনই বাড়ছে কোভিডে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা।

চীনের জাতীয় স্বাস্থ্যসেবা কর্তৃপক্ষ ন্যাশনাল হেলথ কমিশন জানিয়েছে, গত ছয় দিনে জিয়ানে করোনা পজিটিভ হিসেবে শনাক্ত হয়েছেন অন্তত ৬৩ জন।

নগর কর্তৃপক্ষ ইতোমধ্যে জিয়ানের সব অভ্যন্তরীণ ও আন্তর্জাতিক ফ্লাইট বাতিল করেছে।

২০১৯ সালের ডিসেম্বরে চীনের হুবেই প্রদেশের উহান শহরে বিশ্বের প্রথম করোনায় আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়। করোনায় প্রথম মৃত্যুর ঘটনাটিও ঘটেছিল চীনে।

কিন্তু সংক্রমণ দেখা দেওয়ার পর থেকেই করোনার বিষয়ে জিরো টলারেন্স নীতি নিয়েছে চীন। মাত্র একজনের দেহে করোনাভাইরাসের উপস্থিতি শনাক্তের পর ২২ ডিসেম্বর দেশটির গুয়াংজি প্রদেশের ডংজিং শহরেও লকডাউন জারি করেছে সরকার।

সরকারি তথ্য অনুযায়ী, ২০২০ সালে মহামারি শুরুর পর থেকে এ পর্যন্ত বিশ্বের সবচেয়ে জনবহুল এই দেশটিতে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন মোট ১ লাখ ৬৪৪ জন এবং এ রোগে মারা গেছেন মোট ৪ হাজার ৬৩৬ জন।

সূত্র : যুগান্তর
এন এইচ, ২৪ ডিসেম্বর

Back to top button