পশ্চিমবঙ্গ

হলফনামায় সত্য গোপনে বিপাকে বিজেপি সাংসদ অর্জুন!

কলকাতা, ২৩ ডিসেম্বর – নির্বাচনী হলফনামায় নিজের স্ত্রী ও সম্পত্তি নিয়ে ভুল তথ্য দেওয়ার অভিযোগ উঠল ব্যারাকপুরের বিজেপি সাংসদ অর্জুন সিংয়ের (BJP MP Arjun Singh) বিরুদ্ধে। এই অভিযোগের ভিত্তিতে বিজেপি সাংসদের বিরুদ্ধে সমন জারি করলেন বারাসত দ্বিতীয় বিচারবিভাগীয় ম্যাজিস্ট্রেট। আগামী ১৪ ফেব্রুয়ারি সাংসদকে আদালতে হাজির হওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন বিচারক। কেন নির্বাচনী হলফনামায় ভুল তথ্য দিলেন সাংসদ, তার কারণ দর্শাতে হবে আদালতে।॥

আদালত সূত্রে জানা গিয়েছে, ২০১৯ সালের লোকসভা নির্বাচনের সময় নির্বাচনী হলফনামায় ‘ভুল’ তথ্য দিয়েছিলেন অর্জুন সিং। চলতি বছরের ১১ ফেব্রুয়ারি বারাসত আদালতে এনিয়ে অভিযোগ দায়ের করেন জগদ্দল বিধানসভার বিধায়ক সোমনাথ শ্যাম। বিধায়কের দাবি, স্থাবর ও অস্থাবর সম্পত্তি ও নিজের স্ত্রীর সম্পর্কে হলফনামায় ‘মিথ্যা’ তথ্য দিয়েছেন সাংসদ।

জানা গিয়েছে, হলফনামায় সাংসদ উল্লেখ করেছিলেন, তাঁর একজন স্ত্রী। কিন্তু বিধায়কের দাবি, অর্জুন স্ত্রী হিসাবে যাঁর নাম উল্লেখ করেছেন তিনি ছাড়াও আরও একজন স্ত্রী রয়েছেন বিজেপি সাংসদের। তাঁর নাম হলফনামায় গোপন করা হয়েছে। বিধায়ক দাবি করেছেন, অর্জুন সিংয়ের দ্বিতীয় স্ত্রী শ্রাবন্তী সিং। যার একটি পুত্র সন্তানও রয়েছে। তাঁর নাম অভিরুপ সিং।

এছাড়াও বেঙ্গালুরুর একটি সংস্থায় ২ লক্ষ টাকার শেয়ার রয়েছে অর্জুন সিংয়ের বলে দাবি বিধায়কের। অভিযোগ, নির্বাচনী হলফনামায় তা উল্লেখ করেননি সাংসদ। বিধায়ক সোমনাথ শ্যামের কথায়, নির্বাচনী হলফনামায় ভুল তথ্য দেওয়া আইন অনুযায়ী গুরুতর অপরাধ। এই অভিযোগের প্রেক্ষিতেই এদিন নির্দেশ সাংসদকে সমন পাঠিয়েছে আদালত। বিচারক উল্লেখ করেছেন, আগামী শুনানিতে অর্জুন সিং হাজিরা না দিলে তাঁর বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করা হবে।

সূত্র : সংবাদ প্রতিদিন
এন এইচ, ২৩ ডিসেম্বর

Back to top button