ফুটবল

স্বাধীনতার সুর্বণজয়ন্তীতে দেশবাসীর জন্য এই উপহার: মারিয়া

ঢাকা, ২৩ ডিসেম্বর – মেয়েদের অনূর্ধ্ব-১৯ সাফ চ্যাম্পিয়নশিপে ভারতকে হারিয়ে অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন হয়েছে বাংলাদেশ। পুরো টুর্নামেন্টে একটি ম্যাচেও হারেনি লাল সবুজের মেয়েরা, সঙ্গে হজম করেনি কোনো গোল। ফাইনালের মহারণে ভারতকে ১-০ গোলে হারিয়ে বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়ন হয়। আর এই জয় দেশবাসীর জন্য উপহার হিসেবে বলছেন অধিনায়ক মারিয়া মান্ডা।

শিরোপা জয়ের পর উচ্ছ্বসিত মারিয়া বলেন, ‘স্বাধীনতার সুর্বণজয়ন্তী উপলক্ষে সবাইকে আমরা একটা উপহার দিলাম।’

বুধবার (২২ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় কমলাপুরে বীরশ্রেষ্ঠ সিপাহী কামাল স্টেডিয়ামে ফাইনালের লড়াইয়ে আনুচিং মোগিনির গোলে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে বাংলাদেশ। মেয়েদের খেলা দেখার জন্য গ্যালারি উত্তাল ছিল লাল সবুজের দর্শকদের ঢেউয়ে। মারিয়া তাদেরও ধন্যবাদ দিতে ভুল করেননি।

‘দেশের মাটিতে খেলা, অনেক দর্শক এসেছিল মাঠে, তাদেরকে আমরা ভালো খেলা উপহার দিলাম। সবাইকে ধন্যবাদ, তারা আমাদের সমর্থন দিয়েছে। অনেক ভালো লাগছে, আমরা তাদের শিরোপা উপহার দিতে পেরেছি’- এভাবেই বলেছেন বাংলাদেশ অধিনায়ক।

এই টুর্নামেন্টে সর্বোচ্চ ৫ গোল দিয়েছেন বাংলার মেয়ে শাহেদা আক্তার রিপা। চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পর রিপার কণ্ঠে ঝরছে উচ্ছ্বাস। বলেন, ‘অনেক অনেক ভালো লাগছে। সবাই আমাদেরকে সমর্থন করেছে, আমরাও তার প্রতিদান দিয়েছি। আসলে প্রত্যাশা করিনি…আল্লাহর রহমতে এটা হয়ে গেছে।’

মাঝ মাঠের প্রাণ ভোমরা মনিকা চাকমা মনে করেন পরিশ্রমের ফল পেয়েছে বাংলাদেশ। তিনি বলেন, ‘আসলে আমরা মাঠে যখন নেমেছি, আমরা পুরো কঠিন পরিশ্রম করেছি। মারিয়ার সঙ্গে আমার বোঝাপড়া খুব ভালো। আমরা চ্যাম্পিয়ন হয়েছি, খুব ভালো লাগছে। যখন গোলকিপার গ্রিপ করেছিল বলটা, তখন মনে হয়েছিল গোল হবে।’

গোলাম রাব্বানী ছোটনের দল সাফের প্রথম আসরেই চ্যাম্পিয়ন হলো ভারতকে হারিয়ে। তিন বছর আগে ভুটানে প্রথমবার মেয়েদের বয়সভিত্তিক অনূর্ধ্ব-১৮ সাফে নেপালকে ফাইনালে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল বাংলাদেশ। ২০১৮ সালের পর এই বছর টুর্নামেন্টটি আয়োজিত হলো বয়স এক বছর বাড়িয়ে। আর সেখানেও লাল-সবুজের দাপট দেখেছে এশিয়া।

সূত্র : রাইজিংবিডি
এন এইচ, ২৩ ডিসেম্বর

Back to top button