জাতীয়

বিএনপির মধ্যে একটা ‘না রোগ’ দেখা দিয়েছে: তথ্যমন্ত্রী

ঢাকা, ১৯ ডিসেম্বর – বিএনপি এবং জামায়াত যদি নেতিবাচক রাজনীতি না করতো তাহলে দেশ অনেক এগিয়ে যেতো বলে মনে করেন তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। তিনি বলেন, আমি দেখতে পাচ্ছি বিএনপির মধ্যে একটা ‘না’ রোগ দেখা দিয়েছে। তারা সব কিছুতেই না না বলছে।

রোববার বাংলাদেশ টেলিভিশন চট্টগ্রাম কেন্দ্রের রজতজয়ন্তী এবং ২৪ ঘণ্টা সম্প্রচার কার্যক্রমের উদ্বোধন অনুষ্ঠানের আগে সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তরে তথ্যমন্ত্রী বলেন, বিএনপি সংলাপে যাবে না, নির্বাচনে যাবে না, এমনকি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনেও যাবে না। এখন তো আমি আশঙ্কার মধ্যে আছি, এইরকম না না বলতে বলতে বিএনপি নিজেরাই কখন আবার নাই হয়ে যায়।

এদিকে স্বাধীনতার ৫০ বছরে দেশের কোনো অর্জন নেই- বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের এমন বক্তব্যের প্রতিক্রিয়ায় হাছান মাহমুদ বলেন, মির্জা ফখরুলকে আমি বুদ্ধিমান ও জ্ঞানী মনে করতাম। কিন্তু তিনি দলকানা হতে গিয়ে বুদ্ধিহীন হয়ে গেছেন এবং নিজের জ্ঞানও হারিয়ে ফেলেছেন।

ফখরুলের এমন দাবির বিপরীতে মন্ত্রী তুলে ধরেন, গত ৫০ বছরে বাংলাদেশ যেভাবে এগিয়েছে, সেটি পৃথিবীর সামনে একটি উদাহরণ। মাথাপিছু আয়, মানব উন্নয়ন সূচক, সামাজিক সূচকে বাংলাদেশ ভারতের চেয়ে এগিয়ে গেছে। এছাড়াও সমস্ত সূচকে পাকিস্তানকে অতিক্রম করেছে বাংলাদেশ।

বিশ্বব্যাংক, আইএমএফসহ বিভিন্ন বিশ্ব সম্প্রদায়ের সমীক্ষায় পাওয়া গিয়েছে দাবি করে তথ্যমন্ত্রী জানান, বঙ্গবন্ধুকে যখন হত্যা করা হয় তখন দেশের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি ছিল ৯.৫৪ শতাংশ। সেই জিডিপি গ্রোথ রেট এখনও আমরা অতিক্রম করতে পারিনি। এছাড়াও আগে যেখানে শতকরা ৪১ ভাগ মানুষ দারিদ্র্যসীমার নিচে ছিল, সেখানে এখন এই সংখ্যা শতকরা ২০ ভাগেরও নিচে নেমে এসেছে।

এছাড়াও তথ্যমন্ত্রী নিজে দাবি করেন, বিএনপি বাধা হয়ে না দাড়ালে দেশের আরও উন্নতি হতো। তার এই বক্তব্যের সময় সেখানে আরও উপস্থিত ছিলেন শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল, সাংসদ সাইমুল সারওয়ার কমল, চট্টগ্রাম নগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আ জ ম নাছির উদ্দীনসহ আরও অনেকে।

সূত্র: বাংলাদেশ জার্নাল
এম ইউ/১৯ ডিসেম্বর ২০২১

Back to top button