বলিউড

রিয়েলিটি শো’র বিচারক হতে কে কত পারশ্রমিক নেন?

মুম্বাই, ১৯ ডিসেম্বর – তারকাদের দামি শখের শেষ নেই। কিন্তু সেই বিপুল ব্যয়ের অর্থ আসে কোথা থেকে? প্রত্যেকেরই বছরে এক বা একাধিক ছবি মুক্তি পায়, বা সে সব ছবির পারিশ্রমিকের টাকাতেই শখ আহ্লাদ চলে— এমন কথা বোধ হয় এদের পরম বন্ধুও বলতে পারবেন না। তা হলে কারা চালান তারকাদের খরচাপাতি?

টেলিভিশনের বিভিন্ন রিয়্যালিটি শো থেকেই কোটি কোটি টাকা উপার্জন করেন বলিউড তারকারা। হিসেব করে দেখা গেছে, টেলিভিশন থেকে তাদের আয়ের অঙ্ক এতটাই বেশি যে, বছরে একটি সিনেমাও না করলে চলে। রুপোলি পর্দার নায়ক-নায়িকা হয়েও, টেলিভিশন তাদের লক্ষ্মী।

বলিউড তারকারা কে কত টাকা আয় করেন রিয়্যালিটি শো থেকে এবার জেনে নেয়া যাক—

রিয়্যালিটি শোয়ের বিচারক হিসেবে প্রথমেই বলতে হয় শিল্পা শেট্টির কথা। ৯০-এর দশকের অভিনেত্রী। তবে এখনও বলিউডের নবাগতাদের সঙ্গে প্রতিযোগিতায় নামতে পারেন বলে মনে করেন শিল্পার ভক্তরা। তাকে বিচারকের ভূমিকায় দেখা গেছে তিনটি নাচের প্রতিযোগিতায়। এর মধ্যে ‘সুপার ডান্সার’-এর একটি সিজনের জন্য শিল্পা ১৪ কোটি রুপি টাকা নিয়েছিলেন।

মাধুরী দীক্ষিত শিল্পার চেয়ে অনেক সিনিয়র। তবে তার উপস্থিতির দর আরও বেশি। মাধুরী পুরো সিজনের পারিশ্রমিক নেন না। মাঝে মাঝে তার দেখা পেতে পর্ব পিছু ১ কোটি রুপি খরচ করেন রিয়্যালিটি শোয়ের প্রযোজকেরা।

অমিতাভ বচ্চন ‘কৌন বনেগা ক্রোড়পতি’র প্রথম সিজনে প্রতি পর্বে ২৫ লক্ষ রুপি পারিশ্রমিক নিতেন। ১১তম সিজনে দর অনেকটাই বেড়েছে। এখন প্রতি পর্বে সাড়ে তিন কোটি টাকা নেন বলিউডের ‘অ্যাংরি ইয়ংম্যান’।

‘বিগবস’ আর সলমন খান এখন প্রায় সমার্থক। শুরুতে প্রতি পর্বে ‘বিগবস’-এর মঞ্চে উঠতে সাড়ে ছ’কোটি রুপি নিতেন টাইগার। পরে তা বেড়ে সাড়ে আট কোটি রুপি হয়। এখন অবশ্য আর অত হিসেব করেন না। সিজন পিছু ২০০ কোটি টাকা নিয়ে নেন।

‘ঝলক দিখলা যা’-র একটি সিজনের বিচারক হওয়ার জন্য ১ কোটি পারিশ্রমিক চেয়েছিলেন মালাইকা। তবে ‘ইন্ডিয়াজ বেস্ট ডান্সার’-এ তিনি প্রতি পর্বে আট লক্ষ রুপি পারিশ্রমিক নেন।

পারিশ্রমিকের নিরিখে সলমনের কাছাকাছি হৃতিক রোশন। একবারই একটি নাচের রিয়্যালিটি শোয়ের বিচারক হয়েছিলেন। একটি সিজনের জন্য ১১২ কোটি রুপি নিয়েছিলেন হৃতিক।

শাহিদ কপূরও বিচারক হয়েছিলেন। নাচের প্রতিযোগিতা ‘ঝলক দিখলা যা’-র পর্ব পিছু পৌনে দু’কোটি রুপি করে নিতেন তিনি।

‘নাচ বলিয়ে’-র অষ্টম সিজনের বিচারক সোনাক্ষির প্রতি পর্বের পারিশ্রমিক ছিল এক কোটি রুপি।

৯০-এর দশকের আর এক অভিনেত্রী রবিনা ট্যান্ডন ‘শাইন অফ ইন্ডিয়া’র পর্ব পিছু ১ কোটি ২৫ লক্ষ রুপি নিয়েছিলেন।

এন এইচ, ১৯ ডিসেম্বর

Back to top button