বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

এ বছর যেসব সেবা বন্ধ করেছে গুগল

প্রতি বছরের মতো ২০২১ সালেও গুগল তাদের বেশ কয়েকটি পণ্য এবং পরিষেবা বন্ধ করে দিয়েছে। এর মধ্যে কয়েকটি মাত্র কয়েক বছর আগে চালু হলেও, কয়েকটি আবার দশক পুরোনো।

গুগলের সেবাগুলো বন্ধ হওয়ার কারণগুলোর মধ্যে অন্যতম হলো ব্যবহারকারীর মধ্যে আগ্রহের অভাব। আবার কিছু পণ্য বছরের পর বছর ধরে চললেও বর্তমানে নতুন প্রযুক্তি এবং প্ল্যাটফর্ম আসার ফলে এগুলো প্রাসঙ্গিকতা হারিয়েছে। তাই গুগল সেগুলো বন্ধ করে দিয়েছে। ২০২১ সালে গুগলের বন্ধ হয়ে যাওয়া পণ্য ও পরিষেবাগুলো সম্পর্কে চলুন জেনে নেওয়া যাক।

* গুগল টুলবার: গত বছর লঞ্চ হয়েছিল গুগল টুলবার। অথচ এ বছরের ডিসেম্বরেই এটি বন্ধ করে দিয়েছে গুগল। এটি একটি ওয়েব ব্রাউজার টুলবার ছিল, যা ইন্টারনেট এক্সপ্লোরার ও ফায়ারফক্সের মতো একাধিক ওয়েব ব্রাউজারে একটি সার্চ বক্স সুবিধা দিত।

* গুগল মাই ম্যাপ: এটি একটি আন্ড্রয়েড অ্যাপ। ব্যক্তিগত কাস্টমাইজড ম্যাপস এবং মোবাইল ডিভাইস থেকে লোকেশন শেয়ার করার জন্যই অ্যাপটি ব্যবহৃত হতো। ২০১৪ সালে লঞ্চ হওয়া এই অ্যাপটি দুই মাস আগে বন্ধ করে দিয়েছে গুগল।

* গুগল বুকমার্ক: ২০০৫ সালে লঞ্চ হয়েছিল গুগল বুকমার্ক। প্রাইভেট ওয়েব বেসড বুকমার্কিং এই পরিষেবা গুগলের অন্য কোনো পরিষেবার সঙ্গে ইন্টিগ্রেট করা যেত না। ১৬ বছর বয়সী এই পরিষেবা মাস তিনেক আগে বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

* গুগল চ্যাটবেস: গুগল ডায়লগফ্লো চ্যাটবট এবং অন্যান্য সার্ভিসের জন্য ব্যবহৃত একটি অ্যানালিটিক্স প্ল্যাটফর্ম এই গুগল চ্যাটবেস। ২০১৭ সালে লঞ্চ করার মাত্র চার বছর পর ২০২১ সালে বন্ধ করা হয় এই সার্ভিস।

* ফিটস্টার ইয়োগা: চলতি বছর বিদায় নেওয়া গুগলের অন্যতম অ্যাপ হলো ফিটস্টার ইয়োগা। এটি ভিডিওভিত্তিক ইয়োগা অ্যাপ। ব্যবহারকারীর পছন্দ এবং দক্ষতার লেভেলের ওপর ভিত্তি করে অনন্য ইয়োগা ভিডিওর সুবিধা দিত এ অ্যাপ। ২০১৪ সালে লঞ্চ হওয়া এ অ্যাপটির যাত্রা এ বছর ইতি টেনেছে গুগল।

* ফিটবিট কোচ: আগে এ অ্যাপটির নাম ছিল ফিটস্টার। পরবর্তীতে নাম হয় ফিটবিট কোচ। ২০১৩ সালে চালু হওয়ার ৮ বছরের মাথায় এর সমাপ্তি ঘটল। এটি ছিল ওজন কমাতে শরীরচর্চার ভিডিওভিত্তিক অ্যাপ।

* গুগল ট্যুর বিল্ডার: এটি ব্যবহারকারীদের গুগল আর্থের ভেতরে ইন্টার‌্যাক্টিভ ট্যুর তৈরি এবং ছবি ও ভিডিওসহ লোকেশন শেয়ার করার সুবিধা দিত। ২০১৩ সালে লঞ্চ হওয়া এই পরিষেবা পাঁচ মাস আগে বন্ধ করে দিয়েছে গুগল।

* গুগল এক্সপেডিশনস: স্কুলের ক্লাসরুমে শিক্ষক এবং পড়ুয়াদের জন্য ভার্চুয়াল রিয়্যালিটি অভিজ্ঞতা দিতে পারে গুগল এক্সপেডিশনস। গুগল কার্ডবোর্ডের মাধ্যমেই কাজ করত এই বিশেষ প্রোগ্রাম। ২০১৫ সালে লঞ্চ করা হয়েছিল এই প্রোগ্রাম।

* গুগল ট্যুর ক্রিয়েটর: ২০১৮ সালে লঞ্চ হয়েছিল এ পরিষেবা। ব্যবহারকারীদের ৩৬০ ডিগ্রি গাইডেড ট্যুর তৈরি করার সুবিধা দিত এটি। ভার্চুয়াল রিয়েলিটি ডিভাইসের সাহায্যে যা দেখা যেত। মাত্র ৩ বছর বয়সেই গুগল টুর ক্রিয়েটর বন্ধ করা হলো।

* পলি: থ্রিডি অবজেক্ট শেয়ার করার জন্য ক্রিয়েটরদের জন্য ২০১৭ সালে পলি প্ল্যাটফর্ম চালু করে গুগল। ছয় মাস আগে পরিষেবাটি বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

এ বছর বন্ধ হয়ে যাওয়া গুগলের পণ্য বা পরিষেবাগুলোর মধ্যে আরো রয়েছে-

* গুগল প্লে মুভিজ অ্যান্ড টিভি (২০১১ সালে লঞ্চ করা হয়েছিল)।

* মেজার (২০১৬ সালে লঞ্চ করা হয়েছিল)।

* জিঙ্গ রেন্ডার (২০১৪ সালে লঞ্চ করা হয়েছিল)।

* টাইমলি (২০১৩ সালে লঞ্চ করা হয়েছিল)।

* গুগল শপিং মোবাইল অ্যাপ (২০১৯ সালে লঞ্চ করা হয়েছিল)।

* গুগল পাবলিক অ্যালার্টস (২০১২ সালে লঞ্চ করা হয়েছিল)।

* গুগল গো লিংক (২০১০ সালে লঞ্চ করা হয়েছিল)।

* গুগল ক্রাইসিস ম্যাপ (২০১১ সালে লঞ্চ করা হয়েছিল)।

* গুগল কার্ডবোর্ড (২০১৪ সালে লঞ্চ করা হয়েছিল)।

* সুইফট ফর টেনসরফ্লো (২০১৮ সালে লঞ্চ করা হয়েছিল)।

* টিল্ট ব্রাশ (২০১৬ সালে লঞ্চ করা হয়েছিল)।

* লুন (২০১৪ সালে লঞ্চ করা হয়েছিল)

* অ্যাপ মেকার (২০১৬ সালে লঞ্চ করা হয়েছিল)।

এন এইচ, ১৬ ডিসেম্বর

Back to top button