মধ্যপ্রাচ্য

বিশ্বের প্রথম কাগজবিহীন সরকার দুবাইতে

আবুধাবি, ১৩ ডিসেম্বর – সংযুক্ত আরব আমিরাতের দুবাইয়ের সরকার ব্যবস্থাকে শতভাগ কাগজহীন সরকার হিসেবে ঘোষণা দেওয়া হয়েছে। গত শনিবার আমিরাতের ক্রাউন প্রিন্স শেখ হামদান বিন মোহাম্মদ বিন রশীদ আল মাকতুম এ ঘোষণা দেন। এর মাধ্যমে বিশ্বে প্রথম শতভাগ ‘কাগজবিহীন সরকার’ চালু হলো। এর ফলে ১ দশমিক ৩ বিলিয়ন আমিরাতি দিরহাম এবং ১ কোটি ৪০ লাখ কর্মঘণ্টা বাঁচবে।

গালফ নিউজের প্রতিবেদনে বলা হয়, বিশ্বের অন্যতম বিলাসবহুল এই শহরে সরকারের সব ধরনের অভ্যন্তরীণ, বাহ্যিক লেনদেন এবং পদ্ধতি এখন শতভাগ ডিজিটাল প্রক্রিয়ায় সম্পন্ন হবে। এক বিবৃতিতে ক্রাউন প্রিন্স বলেন, এই লক্ষ্য অর্জন দুবাইয়ের মানুষের দৈনন্দিন জীবনের সব দিককে ডিজিটালাইজ করার যাত্রায় নতুন ধাপের সূচনা করেছে। এটি বাস্তবায়ন বিশ্বের নেতৃস্থানীয় ডিজিটাল রাজধানী হিসেবে দুবাইয়ের মর্যাদা শক্তিশালী হবে।

শেখ হামদান বলেন, ‘সরকার আগামী পাঁচ দশকে দুবাইয়ে ডিজিটাল জীবন ব্যবস্থা তৈরি এবং সক্ষমতা বৃদ্ধির জন্য উন্নত কৌশল বাস্তবায়নের পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে।

কাগজহীন সরকারের কৌশল ২০১৮ সালে গ্রহণের পর পাঁচ ধাপে বাস্তবায়ন করা হয়। শেষ ধাপে এই কৌশল পুরোপুরি বাস্তবায়নে সরকারের ৪৫ প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে এক হাজার ৮০০টিরও বেশি ডিজিটাল পরিষেবা এবং সাড়ে ১০ হাজারের বেশি বড় ধরনের লেনদেন সম্পন্ন করা হয়।

যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, ইউরোপ এবং কানাডা ব্যাপক পরিসরে সরকারি সব কার্যক্রম ডিজিটালাইজ করার পরিকল্পনা প্রকাশ করেছে। তবে অনেকে শতভাগ ডিজিটাল কার্যক্রম ব্যবস্থায় সাইবার হামলার ঝুঁকির ব্যাপারে যুক্তি দিয়েছেন।

সূত্র: আমাদের সময়
এম ইউ/১৩ ডিসেম্বর ২০২১

Back to top button