জাতীয়

কমছে তাপমাত্রা, আসছে শৈত্যপ্রবাহ

ঢাকা, ১২ ডিসেম্বর – গ্রামাঞ্চলে শীত অনুভূত হলেও ঢাকাসহ অন্যান্য বিভাগীয় শহরের তাপমাত্রা অনেকটা বাড়তি। তবে আগামী সোমবার থেকে দেশে বইতে পারে শৈত্যপ্রবাহ। শৈত্যপ্রবাহ শুরুর পর দেশের কিছু কিছু জায়গায় তাপমাত্রা কমে ১০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের নিচে নামতে পারে। তাপমাত্রা একেবারে কম থাকতে পারে রংপুর, যশোর, রাজশাহী অঞ্চল ও মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলে। এদিকে তেঁতুলিয়া আবহাওয়া পর্যবেক্ষণ কেন্দ্র জানিয়েছে, গত সাত দিন ধরে দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা বিরাজ করছে তেঁতুলিয়ায়। তাপমাত্রার পারদ ১১ থেকে ১৩’র ঘরে ওঠানামা করছে। আগামী দিনে আরও বাড়বে শীত। আবহাওয়াবিদ মো. ওমর ফারুক বলেন, রবিবার তাপমাত্রা কমতে থাকবে। কাল সোমবার থেকে শৈত্যপ্রবাহ শুরুর সম্ভাবনা প্রবল। আবহাওয়া অধিদফতরের দেওয়া পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, শুক্রবার সন্ধ্যা ৬টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার উপমহাদেশীয় উচ্চ তাপ বলয়ের বর্ধিতাংশ পশ্চিমবঙ্গ ও তৎসংলগ্ন এলাকা পর্যন্ত বিস্তার লাভ করেছে।

শীতে কাঁপছে পঞ্চগড়:
আমাদের পঞ্চগড় প্রতিনিধি জানান, পঞ্চগড়ে কমছে তাপমাত্রা। বাড়ছে শীতের তীব্রতা। ভোর বেলা থেকে সকাল ১১ টা পর্যন্ত কুয়াশার চাদরে ঢাকা থাকছে সবকিছু। সারাদিন হিমালয় থেকে বয়ে আসা হিমবায়ু প্রবাহিত হচ্ছে। হিমাবায়ুর ফলে কুয়াশার চাদরে মোড়া থাকছে সবকিছু। দুপুরের পর সূর্যের দেখা মিললেও রোদের তীব্রতা কম অনুভূত হচ্ছে। তেঁতুলিয়া আবহাওয়া পর্যবেক্ষণ কেন্দ্র জানিয়েছে, গত ৭ দিন ধরে দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা বিরাজ করছে তেঁতুলিয়ায়। তাপমাত্রার পারদ ১১ থেকে ১৩’র ঘরে ওঠানামা করছে। আগামী দিনে আরও বাড়বে শীত।

এদিকে সারাদিন শীতের কাপড়ে মোড়ানো থাকছে সাধারণ মানুষ। গত দুদিন থেকে শীতের তীব্রতা গভীর ভাবে ঘণিভূত হওয়া শুরু করেছে। ফলে খেটে খাওয়া মানুষ নিদারুণ কষ্টের মুখে পড়েছে। তারা ঠিক সময় মতো কাজে যেতে পারছে না। ছিন্নমূল মানুষ শীতের কাপড়ের সংকটে পড়েছে। শীতের তীব্রতায় কাপড় ব্যবসায়ীরাও শীতের কাপড়ের দাম বাড়িয়ে দিয়েছে। কাপড়ের দোকানগুলোতে বেড়েছে ভিড়। তেঁতুলিয়ার দর্জিপাড়া এলাকার নজিবুল ইসলাম জানান, সকাল ৯ টা পর্যন্ত কুয়াশা থাকে। বাতাসে হাড় কেঁপে ওঠে। কাজ কামে যেতে পারি না। শীতের কাপড় নেই। কম্বল পেলে খুব উপকার হয় বাহে। জেলা প্রশাসন জানিয়েছে ছিন্নমূল মানুষের কাছে ইতিমধ্যে সরকারি অনুদানের কম্বল পৌঁছে দেওয়া শুরু হয়েছে। এ পর্যন্ত ২৮ হাজার কম্বল বিভিন্ন উপজেলায় বিতরণ শুরু হয়েছে। ত্রাণ তহবিলে ৫ লাখ টাকা মজুদ রয়েছে। এগুলোও বিতরণ শুরু হবে।

সূত্র: বিডি প্রতিদিন
এম ইউ/১২ ডিসেম্বর ২০২১

Back to top button