পুষ্টি

নারীর “উর্বরতা” বৃদ্ধি করে যে ৫টি খাবার

বর্তমান সময়ে অনেক নারীই উর্বরতার সমস্যায় ভুগছেন। পরিবেশগত সমস্যার পাশাপাশি বিয়েতে বেশি দেরি হয়ে যাওয়াটাও একটা কারণ। পড়াশোনা শেষ করে চাকরী গুছিয়ে বিয়ে করতে করতে দেরি হয়ে যায় অনেকেরই। ফলে গর্ভধারণে দেরি হয়ে যাওয়ায় নানান রকম জটিলতা দেখা দেয়। এছাড়াও পরিবেশ দূষণ, খাবারে ভেজাল ও কেমিকেলের প্রভাব তো আছেই। এসব উপাদানও নারীর উর্বরতা কমিয়ে দিচ্ছে দিন দিন। যারা সন্তান নেয়ার কথা ভাবছেন তারা অনেকেই নিজের উর্বরতা নিয়ে দুশ্চিন্তাগ্রস্ত।

অনেক সময় কিছু পুষ্টিউপাদানের অভাবেও উর্বরতা কমে যায় নারী দেহের। তাই উর্বরতা বাড়ানোর জন্য প্রয়োজন সঠিক খাবার নির্বাচন করা। আসুন, জেনে নেয়া যাক ৫টি খাবার সম্পর্কে যেগুলো নারীর উর্বরতা বৃদ্ধি করতে সহায়তা করে।

ডিম
ইয়েল বিশ্ববিদ্যালের গবেষকরা সন্তান জন্মদানে অক্ষম নারীদের উপর একটি গবেষনা চালিয়ে দেখতে পান যে তাদের মধ্যে মাত্র ৭% নারীর শরীরে সঠিক মাত্রায় ভিটামিন ডি আছে। বাকি সবাই কমবেশি ভিটামিন ডি এর স্বল্পতায় ভুগছে। তাই উর্বরতা বৃদ্ধি জন্য নারীদেরকে প্রচুর ডিম খেতে বলেছেন গবেষকরা। কারণ ডিমে প্রচুর ভিটামিন ডি পাওয়া যায়।

কলা
কলায় প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন আছে। কলা হরমোনের স্বাভাবিক কার্য প্রকৃয়াকেও নিয়ন্ত্রণ করে। কলায় উপস্থিত ভিটামিন বি৬ অনিয়মিত মাসিককে নিয়মিত করতে সহায়তা করে। এছাড়াও নিয়মিত কলা খেলে দূর্বল ডিম্বানু সবল হয় এবং উর্বরতা বৃদ্ধি পায়।

বাদাম
বাদামে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন ই আছে। গবেষণায় দেখা গিয়েছে যে ভিটামিন ই মেয়ে ইঁদুরের উর্বরতা বৃদ্ধি করে। তাই গবেষকদের ধারণা নিয়মিত বাদাম খেলে শরীরে প্রয়োজনীয় ভিটামিন ই এর চাহিদা পূরণ হবে এবং নারীর উর্বরতা বৃদ্ধি পাবে। বাদামে অ্যান্টি অক্সিডেন্টও আছে যা ডিম্বানুকে রক্ষা করতে সহায়তা করে।

আরও পড়ুন: পুরুষের বন্ধ্যত্বের সমস্যা কেন বাড়ছে, যা করা জরুরি

মটরশুটি
মটরশুটিতে প্রচুর পরিমাণে জিঙ্ক আছে। নারী দেহে হরমোনের ভারসাম্য বজায় রাখার জন্য জিঙ্ক অত্যন্ত জরুরী। বিশেষ করে জিংকের অভাবে এস্ট্রোজেন ও প্রোজেস্টেরনের ভারসাম্য নষ্ট হয়। ফলে গর্ভধারনে সমস্যা হয়। তাই নারীর উর্বরতা বৃদ্ধি জন্য মটরশুটি একটি আদর্শ খাবার।

লেবু
টক জাতীয় রসালো ফল যেমন লেবু, কমলা ইত্যাদি শরীরে হরমোনের ভারসম্য বজায় রাখে। ফলে নারীদের গর্ভধারণে সুবিধা হয়।

আডি/ ৩০ অক্টোবর

Back to top button