জাতীয়

নাসিক নির্বাচন: ফরম সংগ্রহ করলেন নূর হোসেনের সেই বান্ধবী নীলা

নারায়ণগঞ্জ, ১০ ডিসেম্বর – নাসিক নির্বাচনে নমিনেশন ফরম ক্রয় করলেন সেভেন মার্ডার মামলার দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি নূর হোসেনের আলোচিত বান্ধবী সেই নীলা। বৃহস্পতিবার বিকালে তার প্রতিবেশী হিমেল মাহফুজ জয় ও হামিদুল ইসলাম দ্বারা তিনি নমিনেশন ফরম সংগ্রহ করেন। নাসিক ৪, ৫ ও ৬ নং ওয়ার্ডে (সংরক্ষিত মহিলা ওয়ার্ড-২) নির্বাচনের জন্য তিনি এ নমিনেশন ফরম সংগ্রহ করেন।

রাত সাড়ে ১০টায় সাংবাদিকদের ফোন করে তার নমিনেশন ফরম সংগ্রহ করার খবর জানিয়ে নির্বাচনে বিজয়ী হওয়ার আশাবাদ ব্যক্ত করেন নীলা। সেই সাথে তিনি এলাকবাসীর কাছে দোয়া কামনা করেন।

নূর হোসেনের সাজা হওয়ার পর দীর্ঘদিন তিনি নিজেকে নিয়েই ব্যস্ত ছিলেন। এসময় তিনি নামাজ এবং নিজের একমাত্র মেয়েসহ পরিবারকেই সময় দিতেন বলে জানিয়েছেন তার পরিবারের একটি সূত্র। পরবর্তীতে গত এক বছর যাবত দলীয় কিছু কার্যক্রমে অংশ নিতেন সিদ্ধিরগঞ্জ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি প্রয়াত আব্দুল মোতালেবের মেয়ে জান্নাতুল ফেরদৌস নীলা।

সিদ্ধিরগঞ্জের বার্মাষ্টান্ড এলাকার আওয়ামী পরিবারের সন্তান সায়েম প্রধানের সাথে বিবাহ হয় জান্নাতুল ফেরদৌস নীলার। সেই সংসার তার এক কন্যা সন্তান রয়েছে। বাবা মরহুম আব্দুল মোতালেবের সূত্রে রাজনীতিতে পদচারণা ছিল নীলার। তৎকালীন প্রভাবশালী নূর হোসেনের সহযোগিতায় ২০১১ সালের ৩০ অক্টোবর নাসিকের ৪, ৫ ও ৬ নং ওয়ার্ডে (সংরক্ষিত-২ নং ওয়ার্ড) নারী কাউন্সিলর নির্বাচিত হন তিনি। এরপর থেকেই নূর হোসেনের সঙ্গে ঘনিষ্ঠতা আরও বাড়ে।

নূর হোসেনের সাজা হওয়ার পর নীলাকে প্রকাশ্যে খুবই কম দেখা যেত। ২০১৫ সালের ২৪ আগস্ট পূর্বের স্বামী সায়েমকে তালাক দেন নীলা। তখন থেকেই নীলা একাকী জীবনযাপন করেছেন। সেই সময় তিনি নিজের একমত্র কন্যা ও পরিবরাকে সময় দিতেন। ২০১৬ সালের ২২ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের নির্বাচনের পূর্বে মনোনয়নপত্র দাখিল করতে আসেন নির্ধারিত সময়ের পর। যে কারণে তার মনোনয়নপত্র গ্রহণ করেনি রিটার্নিং অফিসার।

পরবর্তীতে গত ৪ বছর নীলাকে প্রকাশ্যে খুবই কম দেখা গেছে। কিন্তু গত এক বছর আওয়ামী লীগের দলীয় অনুষ্ঠানে তাকে কখনো কখনো দেখা যেতো। আসন্ন নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনকে কেন্দ্র করে তিনি পূর্ণোদ্যমে সরব হয়ে বৃহস্পতিবার নমিনেশন ফরম ক্রয় করেন।

সূত্র : নতুন সময়
এম এস, ১০ ডিসেম্বর

Back to top button