ইউরোপ

আবারও মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক করলো যুক্তরাজ্য

লন্ডন, ২৮ নভেম্বর – করোনাভাইরাসের নতুন ধরন ওমিক্রন ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কায় মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক করলো যুক্তরাজ্য সরকার। জানা গেছে, দেশটির দোকান-গণপরিবহনে এখন থেকে মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক। তাছাড়া যুক্তরাজ্যে পৌঁছে ভ্রমণকারীদের অবশ্যই পিসিআর টেস্ট করাতে হবে। মঙ্গলবার থেকে এ নিয়ম কার্যকর হবে। রোববার (২৮ নভেম্বর) বিবিসির এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

দেশটির স্বাস্থ্যমন্ত্রী সাজিদ জাভিদ বলেন, পরিবারের সঙ্গে বড়দিন উপভোগ করার ক্ষেত্রে এ পদক্ষেপ সাহায্য করবে। সরকার দ্রুত ও আনুপাতিক উপায়ে কাজ করেছে। তবে করোনার নতুন ধরন নিয়ে কাজ করা এক চিকিৎসক জানিয়েছেন, অযথা আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই।

সাজিদ জাভিদ বলেন, যেখানে প্রয়োজন সেখানে আনুপাতিক উপায়ে আরও পদক্ষেপ নেওয়া হবে। তবে বাড়ি থেকে কাজ করার প্রয়োজনীয়তা এখন নেই বলে মনে করেন তিনি।

দেশটির ভ্যাকসিন ও ইমিউনাইজেশনের যৌথ কমিটির ডেপুটি চেয়ারম্যান বলেন, আমাদের পূর্বপরিকল্পনা অনুযায়ী প্রাপ্তবয়স্ক সবাইকে বুস্টার ডোজ দেওয়া হবে।

করোনার নতুন ধরন ওমিক্রন সর্বপ্রথম ধরা পরে দক্ষিণ আফ্রিকায়। গত ২৪ নভেম্বর বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিএইচও) বিষয়টি নিশ্চিত করে বিশ্ববাসীকে। একই সঙ্গে সতর্ক হওয়ার আহ্বান জানায়। এর পরপরই দক্ষিণ আফ্রিকার ওপর ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা আসতে থাকে বিভিন্ন দেশ থেকে। সবার আগে যুক্তরাজ্য দক্ষিণ আফ্রিকা ও এর প্রতিবেশী ছয়টি দেশের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করে। এরপর যুক্তরাষ্ট্রসহ আরও অনেক দেশ একই পথে হাঁটে।

যুক্তরাজ্যে দুইজন, জার্মানিতে দুইজন, বেলজিয়ামে একজন, ইতালিতে একজন এবং চেক রিপাবলিকে একজনের শরীরে নতুন ধরন ওমিক্রনের অস্তিত্বের কথা জানা গেছে। এর আগে, দক্ষিণ আফ্রিকার পর ইসরায়েল, হংকং ও বতসোয়ানায় এই নতুন ধরন ওমিক্রন শনাক্ত হয়।

সূত্র: জাগো নিউজ
এম ইউ/২৮ নভেম্বর ২০২১

Back to top button