ক্রিকেট

এখানে ৪০০ বা ৫০০ রান যথেষ্ট নয়!

চট্টগ্রাম, ২৭ নভেম্বর – সবশেষ টেস্টেও এমনটা দেখা গেছে। রান প্রসবা উইকেটে বোলারদের জন্য কিছুই নেই। ৪৩০ রান করেও ম্যাচ হেরেছে বাংলাদেশ। ম্যাচের চতুর্থ ইনিংসে ৩৯৫ রান তাড়া করে জিতেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ! চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামের ২২ গজ নিয়ে তাই অনুমান করা বিশাল ঝুঁকি।

টেস্ট যেহেতু ড্র করতে চায় বাংলাদেশ সেজন্য প্রথম ইনিংসে যতটা সম্ভব ব্যাটিং করতে চায়। ৪ উইকেট হারিয়ে ২৫৩ রান তুলেছে বাংলাদেশ। ব্যাটিংয়ে আছেন সেঞ্চুরিয়ান লিটন (১১৩) ও সেঞ্চুরির পথে আগানো মুশফিক (৮২) । তাদের অবিচ্ছন্ন জুটিতে এসেছে ২০৪ রান। দ্বিতীয় দিন তাদের দিকেই তাকিয়ে থাকবে বাংলাদেশ। তাদের ব্যাট হাসবে বাংলাদেশও।

অপরাজিত দুই ব্যাটসম্যানের পর ইয়াসির আলী রাব্বি ও মেহেদী মিরাজ ব্যাটিংয়ে আসবেন। রাব্বি বিশেষজ্ঞ ব্যাটসম্যান ও মিরাজ অলরাউন্ডার হিসেবে খেলছেন। দুজনের ব্যাটই ভরসা খুঁজছে বাংলাদেশ। প্রথম দিন শেষে দলের প্রতিনিধি হয়ে সংবাদ সম্মেলনে এসেছিলেন অ্যাশওয়েল প্রিন্স।

প্রথম ইনিংসে নিজেদের লক্ষ্য নিয়ে প্রিন্স বলেছেন, ‘উইকেট ব্যাটিংয়ের জন্য ভালো। ৪০০ বা ৫০০ রান কি যথেষ্ট? কেউ বলতে পারবে না। আমাদেরকে যতক্ষণ সম্ভব ব্যাটিং করতে হবে। অধিনায়ক যখন মনে করবেন যথেষ্ট রান হয়েছে তখন ইনিংস ঘোষণা করবে।’

ব্যাটিংয়ে শেষ দিকে হাত ও পিঠে টান পড়ে লিটনের। শেষ দিকে ব্যাটিংয়ে সংগ্রাম করতে হয় তাকে। প্রিন্সের আশা দ্বিতীয় দিনের খেলা শুরুর আগে পুরোপুরি ফিট হয়ে যাবেন লিটন, ‘আমরা আশা করছিলাম আজকের দিনটা যে করেই হোক সে যেন শেষ করে আসে। আশা করছি রাতেই সে স্বরূপে ফিরে আসবে। আশা করছি আগামীকাল এভাবেই সে ব্যাটিং চালিয়ে যাবে।’

লিটনের সেঞ্চুরি উদযাপনে ড্রেসিংরুমের আবহ জানাতে গিয়ে তিনি যোগ করেন, ‘আমরা সবাই প্রচণ্ড খুশি হয়েছিলাম যখন সে সেঞ্চুরি পেয়েছে। তার দৃঢ়চেতা মনোভাব ও জমাট ব্যাটিং দেখে মুগ্ধ হয়েছি। তবে আমরা সকলেই চিন্তিত হয়ে পড়েছিলাম যখন তার ক্র্যাম্প করে। আশা করছি আগামীকাল দিনটি ভালো যাবে।’

সূত্র : রাইজিংবিডি
এন এইচ, ২৭ নভেম্বর

Back to top button