ক্রিকেট

জীবন পেয়ে সেঞ্চুরির আক্ষেপ ফুরালেন লিটন

চট্টগ্রাম, ২৬ নভেম্বর – টেস্টে দুর্দান্ত একটি বছর কাটাচ্ছেন টাইগার ব্যাটার লিটন কুমার দাস। চলতি বছরের বিশ্বের বিভিন্ন দেশের হয়ে খেলা উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যানদের মধ্যে গড় রানে সবার চেয়ে এগিয়ে রয়েছেন তিনি। কিন্তু ডান হাতি এই ব্যাটারের সেঞ্চুরির আক্ষেপটা দীর্ঘদিনের। নার্ভার নাইন্টিতে কাটা পড়েছিলেন দুইবার। তবে এবার আর ভুল করেননি। পাকিস্তানের বিপক্ষে দারুণ এক ইনিংসে ক্যারিয়ারের প্রথম শতকের দেখা পেলেন তিনি।

আজ শুক্রবার চট্টগ্রাম টেস্টে টসে জিতে আগে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেয় বাংলাদেশ। কিন্তু অধিনায়কের সিদ্ধান্তকে কাজে লাগাতে পারেনি টপ অর্ডারের ব্যাটাররা। মাত্র ৪৯ রান তুলতেই চার উইকেট হারিয়ে বড় বিপদে পড়ে বাংলাদেশ। সেখান থেকে মুশফিকুর রহিম ও লিটন দাসের দেড়শ পেরানো জুটিতে পথ ফিরে পায় স্বাগতিকরা। দারুণ ব্যাটে ১৯৯ বলে দশ চার ও এক ছয়ে সেঞ্চুরির দেখা পান লিটন।

দলের বিপদের সময় ক্রিজে এসে দারুণভাবে থিতু হয়ে বসেন লিটন। এই ব্যাটারকে সঙ্গ দেন মুশফিক। দৃষ্টিনন্দন বাউন্ডারিতে যখন অর্ধশতক ছুঁয়েছেন তিনি। তখনই বড় ইনিংসের সম্ভাবনা জাগায় তার ব্যাট। কিন্তু ব্যক্তিগত ৬৭ রানের মাথায় সাজঘরে ফিরতে হতো এই ব্যাটারের। যদিও সাজিদ খানের ক্যাচ মিসে জীবন পেয়ে যান তিনি। বোলার ছিলেন শাহীন শাহ আফ্রিদি। মিডউইকেটে লিটনের ক্যাচ মিস থেকে মাথায় হাত দিয়ে বসে ছিলেন তিনি। হয়তো আফ্রিদিও বুঝে গিয়েছিলেন এই জীবন পাওয়াই কাল হতে পারে পাকিস্তানের জন্য।

অবশ্য ২৫ টেস্টে লিটন নয়টি অর্ধশতক পেলেও অল্পের জন্য সেঞ্চুরির পাননি বেশ কয়েকবার। এরমধ্যে ক্যারিয়ারের শুরু দিকে ৯৪ ও সবশেষ ম্যাচে ৯৫ রানে সাজঘরে ফেরেন তিনি। এ ছাড়াও ৬০ এর অধিক রান পেয়েছেন আরও তিনবার। সব মিলিয়ে দুর্দান্ত এই টেস্ট ক্যারিয়ারে ডান হাতি এই ব্যাটারের আক্ষেপ ফুরালো পাকিস্তান সিরিজ দিয়ে।

সূত্র : আমাদের সময়
এন এইচ, ২৬ নভেম্বর

Back to top button