জাতীয়

বাংলাদেশকে আরও ১৮ লাখ ফাইজারের টিকা দিলো যুক্তরাষ্ট্র

ঢাকা, ২৪ নভেম্বর – মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র বাংলাদেশকে ফাইজারের কোভিড-১৯ ভ্যাকসিনের আরও ১৮ লাখ ডোজ দান করেছে।

বুধবার বাংলাদেশের মার্কিন দূতাবাসের এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র সর্বশেষ এই চালান সহ এখন পর্যন্ত বাংলাদেশকে মোট ১ কোটি ৬৮ লাখ ডোজ কোভিড-১৯ টিকা দান করেছে।

নতুন এই ডোজগুলো পাওয়ার ফলে বাংলাদেশ সরকার ১২ বছর বা তার বেশি বয়সী যুবকদের কোভিড-১৯ টিকা দেওয়া অব্যাহত রাখতে পারবে এবং ২০২১ সালের শেষ নাগাদ টিকার যোগ্য জনসংখ্যার ৪০%-কে টিকা দেওয়ার যে লক্ষ্যমাত্রা স্থির করেছিল তা অর্জন করতে পারবে।

২০২২ সালের মধ্যে বিশ্বজুড়ে বিনামূল্যে ১০০ কোটি ডোজ ফাইজার ভ্যাকসিন দান করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল যুক্তরাষ্ট্র। সেই প্রতিশ্রুতির অংশ হিসেবেই বাংলাদেশকে এই টিকা দিয়েছে দেশটি।

এ ছাড়া জাতীয় কোভিড-১৯ টিকাদান কার্যক্রম ত্বরান্বিত করতে এবং মহামারী মোকাবিলায় সরকারের প্রচেষ্টাকে জোরদার করতেও যুক্তরাষ্ট্র বাংলাদেশের সঙ্গে নিবিড়ভাবে সহায়তা করছে।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ৬,৮০০ জনেরও বেশি স্বাস্থ্যসেবা পেশাদারকে প্রশিক্ষণ দিয়েছে, যাতে তারা নিরাপদে ভ্যাকসিন কার্যক্রম পরিচালনা করতে পারেন। যুক্তরাষ্ট্র বাংলাদেশকে ১৮টি কোল্ড-চেইন ফ্রিজার ট্রাকও দান করেছে এবং সারা দেশে কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন সঠিকভাবে সংরক্ষণ ও পরিবহনের জন্যও সহায়তা করেছে।

টিকা দান এবং টিকা কার্যক্রমে সহায়তা ছাড়াও মার্কিন সরকার কোভিড-১৯-সংক্রান্ত কার্যক্রমে নগদ ১২১ মিলিয়ন ডলারেররও বেশি অর্থ দান করেছে বাংলাদেশকে।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র বিশ্বব্যাপী জাতিসংঘের টিকা সহায়তা কর্মসূচি কোভ্যাক্স-এ ৪০০ কোটি ডলার দান করেছে। যার মধ্যে রয়েছে আল্ট্রা-কোল্ড চেইন স্টোরেজ, পরিবহন এবং কোভিড-১৯ ভ্যাকসিনের নিরাপদভাবে হ্যান্ডেলিংয়ে সহায়তা। এর মধ্য দিয়ে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র বিশ্বব্যাপী কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন সমানভাবে বিতরণে সহায়তাকারী সবচেয়ে বড় দাতা হয়ে উঠেছে।

সূত্র : দেশ রূপান্তর
এন এইচ, ২৪ নভেম্বর

Back to top button