ফ্যাশন

অফিস থেকে পার্টিতে যেতে হলে যেভাবে তাড়াতাড়ি রেডি হবেন…

অফিস থেকেই বন্ধুদের সঙ্গে পার্টিতে যেতে হবে। বাড়ি ফিরে রেডি হওয়ার সময় আপনার হাতে নেই। এদিকে অফিসে পার্টিওয়্যার পরেও যেতে পারবেন না। তা হলে উপায়? কীভাবে অফিসেই রেডি হবেন সন্ধেবেলার পার্টির জন্য রইল তারই কিছু টিপস্ –

১)অফিস থেকে সরাসরি ডেটে যেতে হলে : অফিস থেকে প্রেমিকার সঙ্গে ডেট। গলদঘর্ম পোশাকে সেটা কোনওমতেই সম্ভব নয়। পরুন হালকা রঙের শার্ট। ডার্ক কালারের প্যান্ট। সঙ্গে অবশ্যই মানানসই টাই। উপর থেকে জড়িয়ে নিন ব্লেজার। মোস্ট ফর্মাল এই লুককে আমুল বদলে ফেলুন ডেটে যাওয়ার আগে। টাই আলগা করে নিন। শার্টের হাত সামান্য গুটিয়ে নিন।পানি দিয়ে মুখ পরিষ্কার করে ময়েশ্চারাইজার মেখে নিন। চুল জেল দিয়ে সেট করে সারা শরীরে ছড়িয়ে নিন সুগন্ধি। প্রেমিকা ফ্ল্যাট!

২)অফিসের পরই যদি বন্ধুদের সঙ্গে পাবে যাওয়ার প্ল্যান থাকে : অফিস থেকে বন্ধুদের সঙ্গে পাবে যাওয়ার পরিকল্পনা থাকলে ফর্মাল লুকে একেবারেই মানাবে না। এরজন্য বেছে নিতে হবে এমন একটি শার্ট যা প্রয়োজনে ফর্মাল আবার চাইলেই ক্যাজুয়াল হয়ে উঠতে পারে।  সাদার উপর হাফ স্লিভে যে কোনও চেক শার্ট এর জন্য উপযুক্ত বাছাই। যেমন ধরুন, সাদার উপর লাল, নীল বা কালো, হলুদ চেক।  বেছে নিতে পারেন কার্গো শেডের যে কোনও রংও। জুতোর ব্যাপারে সতর্ক থাকতে হবে। অফিস ওয়্যার হিসেবে বেছে নিতে পারেন চকোলেট বা কফি কালারের শু। প্যান্টের ক্ষেত্রেও তাই। নেভি ব্লু, ক্রিম বা হালকা ধূসর লিনেন প্যান্ট পরলে দারুণ মানাবে। ক্যাজুয়াল ও ফর্মাল দু’ভাবেই পরতে পারবেন।

৩)অফিস থেকে বিয়ে বাড়ি যেতে হলে : এটা একটা মহা চিন্তার ব্যাপার। বিয়ে বাড়ি থাকলে একটু বাড়তি সাজগোজের ব্যাপার চলে আসে। এর জন্য আপনাকে হয়তো বাড়তি ব্যাগও বয়ে বেড়াতে হতে পারে।বিয়ে বাড়ির দিন অফিসে একটু হালকা কাপড়ের পোশাক পরে যান। ব্যাগে নিন জমকালো কোনও শার্ট। বেরনোর সময় ওয়াশরুমে গিয়ে চেঞ্জ করে নিন। সঙ্গে রাখুন সুগন্ধি। তবে হ্যাঁ, বিয়ে বাড়ির জন্য যে প্যান্টটি বেছেছেন, সেটিই পরে যান অফিসে। যাওয়ার আগে জাস্ট শার্ট বদলানো আরকী! ফেসওয়াশ দিয়ে মুখ ধুয়ে নিন। ক্রিম মেখে সুগন্ধি ছড়িয়ে নিলেই হল। দরকার হলে হাফ জ্যাকেট বা ব্লেজারও পরে নিতে পারেন।

এম ইউ

Back to top button