ফুটবল

বর্ষসেরার ১১ জনের তালিকায় মেসি-নেইমার-রোনালদো

প্রতিবছর ব্যক্তিগত পারফর্মেন্সের বিচারে বর্ষসেরা খেলোয়াড়ের তালিকা প্রকাশ করে থাকে ফুটবলের নিয়ন্ত্রক সংস্থা ফিফা। সোমবার ২০২১ সালের ‘দ্য বেস্ট ফিফা মেনস প্লেয়ার’ নির্বাচনে নিজেদের ওয়েবসাইটে ১১ জনের তালিকা প্রকাশ করেছে সংস্থাটি।

এই তালিকায় বর্ষসেরার লড়াইয়ে রয়েছেন আর্জেন্টিনার হয়ে কোপা আমেরিকার শিরোপা জেতা লিওনেল মেসি। তার সঙ্গী হিসেবে প্রত্যাশিতভাবে আছেন তার সবসময়ের প্রতিদ্বন্দ্বী ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো। লড়াইয়ে আছেন মেসির বন্ধু নেইমার জুনিয়রও।

এছাড়া সম্ভাবনার দৌড়ে আছেন ইতালির হয়ে ইউরো ও চেলসির হয়ে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জয়ী জর্জিনিয়ো, গোলমেশিন রবের্ত লেভানদোভস্কি, ফ্রান্সের কিলিয়ান এমবাপে ও করিম বেনজেমার মতো তারকারা।

বর্ষসেরার দৌড়ে মেসি সবচেয়ে এগিয়ে রয়েছে। গত মৌসুমে বার্সেলোনার হয়ে লা লিগায় সর্বোচ্চ ৩০ গোল করে রেকর্ড অষ্টমবারের মতো জেতেন পিচিচি ট্রফি। আর কোপা দেল রের ফাইনালে আথলেতিক বিলবাওয়ের বিপক্ষে ৪-০ ব্যবধানে জয়ে জোড়া গোল করেন তিনি। আর আর্জেন্টিনার হয়ে জেতা কোপা আমেরিকার শিরোপা তো আছেই। সেখানে চার গোল আর পাঁচটি অ্যাসিস্ট করে দলকে নেতৃত্ব দেন সামনে থেকে।

দলীয় খুব বড় কোনো সাফল্য না থাকলেও ব্যক্তিগত অর্জনে বছরটা দুর্দান্ত কেটেছে রোনালদোর। ইউভেন্তুসের হয়ে ২০২০-২১ সেরি আয় সর্বোচ্চ ২৯ গোল করেন তিনি। গড়েন প্রথম খেলোয়াড় হিসেবে প্রিমিয়ার লিগ, লা লিগা ও সেরি আয় আসরের সর্বোচ্চ গোলদাতা হওয়ার রেকর্ড। এই সময়ে দলটির হয়ে ইতালিয়ান কাপ ও ইতালিয়ান সুপার কাপও জেতেন তিনি।

ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপে গিয়েও দারুণ কয়েকটি রেকর্ড গড়েন পাঁচবারের বর্ষসেরা ফুটবলার রোনালদো। পর্তুগাল শেষ ষোলো থেকে বিদায় নিলেও তার আগেই আসরের সর্বোচ্চ পাঁচটি গোল করে আন্তর্জাতিক ফুটবলে আগের রেকর্ড গোলদাতা আলি দাইকে স্পর্শ করেন রোনালদো। এরই মধ্যে রেকর্ডটি নিজেরও করে নিয়েছেন বর্তমানে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডে খেলা সিআর-সেভেন, যদিও তা বিবেচিত সময়ের বাইরে।

ক্লাব পিএসজির হয়ে গত মৌসুমটা হতাশায়ই শেষ হয় নেইমারের। শক্তিতে অনেক পিছিয়ে থাকা লিলের কাছে লিগ ওয়ান শিরোপা হারায় তারা। তবে জাতীয় দলের হয়ে সময়টা বেশ কেটেছে তার। কোপা আমেরিকার ফাইনালে হেরে শিরোপা স্বপ্ন ভাঙলেও আসর জুড়ে তার পারফরম্যান্স ছিল দারুণ। মেসির সঙ্গে যৌথভাবে টুর্নামেন্টের সেরার খেলোয়াড়ের পুরুস্কার জেতেন তিনি।

২০২০ সালের ৮ অক্টোবর থেকে ২০২১ সালের ৭ অগাস্ট পর্যন্ত সময়ের মধ্যে পারফরম্যান্সের বিচারে ফিফার একটি বিশেষজ্ঞ প্যানেল এই তালিকা তৈরি করেছে। এর আগে রেকর্ড ছয়বার বর্ষসেরা ফুটবলারের পুরস্কার জিতেছেন মেসি। গত অগাস্টে পিএসজিতে পাড়ি জমানো এই মহাতারকার সেরা হওয়ার সংখ্যাটা এবার সাত হওয়ার জোর সম্ভাবনা দেখছেন অনেকেই।

আগামী ১০ ডিসেম্বর পর্যন্ত ফিফার ওয়েবসাইটে ভোট দিতে পারবেন ফুটবলপ্রেমীরা। জানুয়ারির শুরুতে এর মধ্য থেকে তিন জনের সংক্ষিপ্ত তালিকা প্রকাশ করা হবে। আর আগামী ১৭ জানুয়ারি ভার্চুয়াল অনুষ্ঠানে বিজয়ীর নাম ঘোষণা করা হবে।

বর্ষসেরার দৌড়ে থাকা ১১ জনের তালিকা:

করিম বেনজেমা, কেভিন ডে ব্রুইনে, ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো, আর্লিং হলান্ড, জর্জিনিয়ো, এনগোলো কঁতে, রবের্ত লেভানদোভস্কি, কিলিয়ান এমবাপে, লিওনেল মেসি, নেইমার ও মোহামেদ সালাহ।

সূত্র : বাংলাদেশ জার্নাল
এন এইচ, ২৩ নভেম্বর

Back to top button