আইন-আদালত

সাংসদ টুকু এলাকা ছেড়েছেন কি না জানতে চায় হাইকোর্ট

ঢাকা, ২২ নভেম্বর – নির্বাচন কমিশনের নির্দেশনা উপেক্ষা করে পৌর নির্বাচনের মধ্যে নিজ এলাকায় অবস্থান করছেন সংসদ সদস্য শামসুল হক টুকু। তাকে সরানোর অগ্রগতি সম্পর্কে জানতে চেয়েছেন হাইকোর্ট।

সোমবার বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমানের হাই কোর্ট বেঞ্চ তা জানতে চেয়েছেন।

এর আগে সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী ও পাবনা ১ (বেড়া- সাঁথিয়া) আসনের সংসদ সদস্য শামসুল হক টুকুকে এলাকা ছেড়ে যাওয়ার অনুরোধ জানিয়ে চিঠি দিয়েছে নির্বাচন অফিস।নির্বাচনে অংশগ্রহণকারী একাধিক প্রার্থী টুকুর বিরুদ্ধে নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগ আনার পর এ চিঠি দেওয়া হয় বলে জানিয়েছেন জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা।

সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী টুকুর ছেলে আসিফ শামস রঞ্জন বেড়া পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী। ওই পদে স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়েছেন টুকুর ছোট ভাই আব্দুল বাতেন ও বড় ভাইয়ের মেয়ে এস এম সাদিয়া আলম।

স্থানীয় সংসদ সদস্য টুকু তার ছেলের প্রতিপক্ষ বাতেনের সমর্থকদের হুমকি দিচ্ছেন বলে অভিযোগ উঠছে। তবে টুকু তা অস্বীকার করছেন। এনিয়ে বাতেন তাই হাইকোর্টে রিট আবেদন করলে তার শুনানি নিয়ে সোমবার আদালতের আদেশ হয়।

টুকুকে নির্বাচনী এলাকায় অবস্থান না করতে রিটার্নিং কর্মকর্তার দেওয়া চিঠির কার্যকারিতা জানতে চাওয়া হয়েছে আদেশে। ওই চিঠির পরও তিনি এলাকা ছেড়েছেন কি না, ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে ওই নির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তাকে তা জানাতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

আদালতে রিট আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী মো. খুরশীদ আলম খান ও মো. সাইফুল আলম। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল বিপুল বাগমার।

সূত্র: যুগান্তর
এম ইউ/২২ নভেম্বর ২০২১

Back to top button