মুন্সিগঞ্জ

মুন্সিগঞ্জে নির্বাচনী সহিংসতায় একজন নিহত, গুলিবিদ্ধ ৫

মুন্সিগঞ্জ, ২২ নভেম্বর – মুন্সিগঞ্জ সদরের চরকেওয়ার ইউনিয়নে নৌকার সমর্থকদের ওপর বিদ্রোহী স্বতন্ত্র প্রার্থীর সমর্থকদের হামলা, গুলি ও ককটেল বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে। রোববার (২১ নভেম্বর) রাত ৮টা থেকে ১০টার মধ্যে ইউনিয়নের খাসকান্দি ও ছোট মোল্লাকান্দি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

হামলায় গুলিবিদ্ধ হয়েছেন নৌকা প্রতীকের পাঁচ সমর্থক। তাদের মধ্যে তিনজনকে গুরুতর অবস্থায় ঢাকায় পাঠানো কয়েছে। অন্য দুইজন মুন্সিগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

এদিকে, হামলায় ককটেল বিস্ফোরণে সময় আতঙ্কে স্ট্রোক করে আব্দুল হক (৪৮) নামের এক ব্যক্তি মারা গেছেন বলে জানিয়েছে পুলিশ। তবে তার স্বজনদের দাবি, মারধর করে হত্যা করা হয় আব্দুল হককে। নিহত আব্দুল হক স্থানীয় মঞ্জিল হকের ছেলে।

ঘটনার পর থেকে এলাকায় থমথমে পরিস্থিতি বিরাজ করছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে ওই এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, নির্বাচনকে কেন্দ্র করে উত্তপ্ত অবস্থা বিরাজ করছিল চরকেওয়ার ইউনিয়নে। রোববার রাতে স্বতন্ত্র আনারস প্রতীকের প্রার্থী আক্তারুজ্জামান জীবনের সমর্থকরা অতর্কিত হামলা চালায় নৌকার প্রার্থী আফসার উদ্দিন ভূইয়ার সমর্থকদের ওপর। হামলার ঘটনা ঘটে ছোট মোল্লাকান্দি ও খাসকান্দি এলাকায়। এ সময় হামলাকারীরা ককটেল বিস্ফোরণ ও গুলিবর্ষণ করে। ভাঙচুর চালায় অর্ধশতাধিক ঘরবাড়ি। হামলায় নৌকার সমর্থক শরীফ, সাইফুল, বাবু হালদার, মনির ও রমজান গুলিবিদ্ধসহ বেশ কয়েকজন আহত হয়। এসময় আতঙ্কে স্ট্রোক করে একজনের মৃত্যু হয়।

মুন্সিগঞ্জ সদর জেনারেল হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক ডা. সোহাগ জানান, নিহত ব্যক্তির শরীরে কোনো গুলি বা আঘাতের চিহ্ন পাওয়া যায়নি। ময়নাতদন্তে মৃত্যুর সঠিক কারণ জানা যাবে। গুলিবিদ্ধ অবস্থায় পাঁচজন হাসপাতালে এসেছে। তাদের মধ্যে তিনজনকে ঢাকায় রেফার্ড করা হয়েছে। অন্য দুজনের চিকিৎসা চলছে।

মুন্সিগঞ্জ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবু বকর জানান, একজন স্ট্রোক করে মারা গেছেন। কয়েকজন গুলিবিদ্ধের খবর শুনেছি। খবর পেয়ে ওই এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

সূত্র : জাগো নিউজ
এন এইচ, ২২ নভেম্বর

Back to top button