জাতীয়

রাজপথে নামতে চায় বিএনপি

কিরণ শেখ

ঢাকা, ১৯ নভেম্বর – দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে বিভিন্ন দাবি-দাওয়া তৈরী করছে দেশের অন্যতম বৃহৎ রাজনৈতিক দল বিএনপি। এই দাবি-দাওয়া নিয়ে তারা সরকারকে আলোচনায় আহ্বান জানাবে। কিন্তু আলোচনা ফলপ্রসূ না হলে কিংবা সরকার তাদের প্রস্তাবে সাড়া না দিলে দাবি আদায়ে দলটি রাজপথকেই বেছে নেবে। এজন্য তারা সারাদেশে দল পুনর্গঠনের কাজও শুরু করেছে। দল পুনর্গঠনের কাজ প্রায় শেষও করেছে দলটি।

বিএনপির একটি নির্ভরযোগ্য সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।

সূত্রটি জানায়, জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে বিএনপি ইতিমধ্যে বিভিন্ন দাবি-দাওয়া তৈরী করেছে। তবে কাজটি এখনো শেষ হয়নি। কাজ শেষ হতে আরো বেশ কিছুদিন সময় লাগবে। এই কাজ শেষ হওয়ার পর দলটি সরকারকে আলোচনার জন্য আহ্বান জানাবে। এই ডাকে সরকার সাড়া না দিলে রাজপথেই দাবি আদায় করে নেবে দলটি।

সরকারের সাথে এই আলোচনায় কত দফা দাবি থাকবে এবং কি কি দাবি-দাওয়া নিয়ে সরকারের সঙ্গে আলোচনায় যাবে তা এখনো চূড়ান্ত করেনি দলটি।

এ বিষয়ে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক দলটির এক সিনিয়র নেতা বলেন, কতটি দাবি থাকবে এবং কি কি দাবি জানাবো হবে তা এখনো চূন্তান্ত হয়নি। তবে এর মধ্যে মূল দাবিগুলো হলো: নির্দলীয় নিরপেক্ষ তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে জাতীয় সংসদ নির্বাচন, বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তি, নিরপেক্ষ নির্বাচন কমিশন গঠন, খালেদা জিয়াসহ বিএনপির সকল নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে দায়েরকৃত মামলা প্রত্যাহারসহ বিভিন্ন দাবি জানানো হবে।

তবে সম্প্রতি এক সভায় বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী বলেছিলেন, বিএনপি যে আন্দোলনের ডাক দিয়েছে, সেখানে আমরা পরিস্কারভাবে বলেছি- এই ভোট চোর, দুর্নীতিবাজ এবং স্বৈরাচার সরকারের সঙ্গে বিএনপি আলোচনায় যাবে না। শুধুমাত্র নিরপেক্ষ সরকারের বিষয়ে আলোচনা হতে পারে। সেই নিরপেক্ষ সরকার কিভাবে হবে, সেই সরকারের গঠন প্রক্রিয়া কেমন হবে- তা নিয়ে আলোচনা হবে। কিন্তু সেই আলোচনা আওয়ামী লীগের সাথে হবে না। সেই আলোচনা দেশের সমস্ত গণতান্ত্রিক দলের সাথে হবে।

জানতে চাইলে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেন, আমরা বিভিন্ন দাবি-দাওয়া তৈরী করছি। এটা জনগণকে জানানোর পর পরিবেশ ও পরিস্থিতি বুঝে আমরা ব্যবস্থা নেবো।

এদিকে নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচনের দাবিতে আন্দোলনে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছে বিএনপি। এই আন্দোলনের জন্য তারা প্রস্তুতিও গ্রহণ করছে। এর অংশ হিসেবে দলের পুনর্গঠনের কাজও শুরু হয়েছে। আর দল পুনর্গঠনের কাজ শেষ হলেই দলটি রাজপথের আন্দোলনের কর্মসূচি ঘোষণা করবে। তবে কবে নাগাদ এই কর্মসূচি নিয়ে তারা মাঠে নামবে তার জন্য সময় ও তারিখ এখনও নির্ধারণ করেনি দলটি।

দল পুনর্গঠনের বিষয়ে জানতে চাইলে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেন, আমরা দল পুনর্গঠনের কাজ করছি। এখনও পুনর্গঠনের কাজ চলছে।

সূত্র : বাংলাদেশ জার্নাল
এন এইচ, ১৯ নভেম্বর

Back to top button