ইউরোপ

পোল্যান্ডে ১০০ অভিবাসনপ্রত্যাশী আটক

ওয়ারশ, ১৮ নভেম্বর – সীমান্ত থেকে পোল্যান্ডের সেনাবাহিনী ১০০ অভিবাসনপ্রত্যাশীকে আটক করেছে। বৃহস্পতিবার (১৮ নভেম্বর) তাদের আটক করা হয়। পোল্যান্ড সেনাবাহিনীর দাবি, বেলারুশ সেনাদের তৎপরতা ও উসকানিতে রাতে এসব অভিবাসনপ্রত্যাশীরা সীমান্ত অতিক্রম করে। আরব নিউজের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

সম্প্রতি দুই দেশের সীমন্তে সৃষ্ট অভিবাসন সংকটের দায় অস্বীকার করেছে বেলারুশ কর্তৃপক্ষ। এরই মধ্যে অভিবাসনপ্রত্যাশীদের নিজ দেশে ফেরত পাঠানোর উদ্যোগ নিয়েছে দেশটি। এরই মধ্যে ১০০ অভিবাসনপ্রত্যাশীকে আটকের খবর এলো।

সীমান্ত সমস্যা নিয়ে পোল্যান্ডের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, বেলারুশের সেনারা কাঁটাতারের বেড়া ক্ষতিগ্রস্ত করেছে। বেলারুশের ইন্ধনে অভিবাসনপ্রত্যাশীরা পোল্যান্ডের সেনাবাহিনীর ওপর পাথর নিক্ষেপ ও সীমান্ত অতিক্রম করার চেষ্টা করছে। এসময় প্রায় ১০০ অভিবাসনপ্রত্যাশীর একটি দলকে আটক করা হয়েছে বলেও জানানো হয়।

মধ্যপ্রাচ্য থেকে আসা হাজার হাজার অভিবাসনপ্রত্যাশী বেলারুশ ও পোল্যান্ড সীমান্তের জঙ্গলে তীব্র শীতের মধ্যেই অবস্থান করছেন। ইউরোপীয় ইউনিয়নভুক্ত দেশ পোল্যান্ড এসব অভিবাসনপ্রত্যাশীদের আশ্রয় দিতে অস্বীকৃতি জানিয়েছে।

অভিবাসনপ্রত্যাশীদের মধ্যে বেশ কয়েকজন এরই মধ্যে মারা গেছেন। শীতের তীব্রতা বাড়ায় পরিস্থিতি খারাপ হওয়ায় বাকিদের নিরাপত্তা নিয়েও ঝুঁকি তৈরি হয়েছে।

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের ঘনিষ্ঠ হিসেবে পরিচিত বেলারুশের প্রেসিডেন্ট আলেকজান্ডার লুকাশেঙ্কো বলেছেন, অভিবাসী সংকটের সঙ্গে বেলারুশের কোনো সম্পর্ক নেই।

এর আগে পোল্যান্ড-বেলারুশ সীমান্তে শত শত অভিবাসনপ্রত্যাশী অবস্থান নেয়। অভিবাসনপ্রত্যাশীদের প্রবেশ ঠেকাতে সেখানে কয়েক হাজার পুলিশ মোতায়েন করে পোল্যান্ড সরকার। সীমান্তে এমন জটিল পরিস্থিতির জন্য রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনকে দায়ী করেন পোল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী মারেউতস মোরাউইকি।

পোল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী অভিযোগ করেন, বেলারুশ কর্তৃপক্ষের সঙ্গে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক রয়েছে। বেলারুশ সীমান্তের দিকে অভিবাসনপ্রত্যাশীদের ঠেলে দেওয়ার অভিযোগ করে তিনি বলেন, এই সংকটের মাস্টারমাইন্ড মস্কো।

সূত্র: জাগো নিউজ
এম ইউ/১৮ নভেম্বর ২০২১

Back to top button