ক্রিকেট

প্রথম বল থেকেই আগ্রাসী থাকবেন শান্ত

ঢাকা, ১৮ নভেম্বর – টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটের যে নতুন যুগে প্রবেশ করতে যাচ্ছে বাংলাদেশ সেই পতাকা উড়ানোর সুযোগ এসেছে নাজমুল হোসেন শান্তর। টেস্ট দলে থিতু হয়েছেন। কিন্তু সীমিত পরিসরে আসা-যাওয়ার মধ্যেই থাকেন তিনি। তবে প্রতিশ্রুতিশীল ক্রিকেটারকে নিয়ে এবার অনেক বড় স্বপ্ন টিম ম্যানেজমেন্টের।

বিশ্বকাপে ভরাডুবির পর পুরোনো ক্রিকেটারদের বাদ দিয়ে দলে ভেড়ানো হয়েছে তাকে। আস্থার প্রতিদান কি দিতে পারবেন শান্ত? তার বিশ্বাস, নিজেদের স্বাভাবিক ক্রিকেট খেলতে পারলে এবং পারফরম্যান্স উপভোগ করতে পারলে ফল পক্ষে আসবে। বিসিবির পাঠানো ভিডিও বার্তায় শান্ত কথা বলেছেন পাকিস্তানের বিপক্ষে সিরিজ নিয়ে।

টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে আপনার ব্যাটিং অ্যাপ্রোচ কেমন হতে পারে?

নাজমুল হোসেন শান্ত: টি-টোয়েন্টি অবশ্যই রানেরই খেলা। আমি যখনই খেলি আমার লক্ষ্য থাকে আক্রমণাত্মক ক্রিকেটই খেলব। চিন্তা থাকে প্রথম বল থেকেই আগ্রাসী মেজাজে থাকব। তার মানে এই না যে প্রতি বলেই মারতে থাকব। অবশ্যই বল বিচার করে খেলব।

আপনি টি-টোয়েন্টি দলে ফিরেছেন। এবার অনেক সিনিয়র ক্রিকেটার নেই। অনেক নতুন ক্রিকেটার এসেছেন। সব মিলিয়ে দলটিকে কিভাবে মূল্যায়ন করবেন?

নাজমুল হোসেন শান্ত: আমরা এখানে যারা আছি প্রত্যেকেই সামর্থ্যবান। প্রত্যেকটা ব্যাটসম্যানই দায়িত্ব নিয়ে খেলার মতো। আমাদেরই দায়িত্ব নিতে হবে। এখানে সিনিয়র বা জুনিয়র বলে কিছু নাই। এখানে সবাই সামর্থ্যবান বলে আমরা আছি। প্রত্যেকেরই দায়িত্ব আছে। যার যে দায়িত্ব সমানভাবে পালন করতে হবে। সবারই সেই সামর্থ্য আছে।

প্রতিপক্ষ পাকিস্তানকে নিয়ে আপনার মূল্যায়ন?

নাজমুল হোসেন শান্ত: বিশ্ব ক্রিকেট চিন্তা করলে পাকিস্তান সেরা দলগুলোর একটি। বিপিএলে ওদের বেশ কয়েকজনের সঙ্গে খেলার সুযোগ হয়েছে। ওই দিক থেকে আমরা একটু আত্মবিশ্বাসী যে ওই বোলারদের মোকাবেলা করেছি, বা ওই ব্যাটসম্যানের বিপক্ষে বল করেছি। এই সুযোগ আছে। বিশ্ব ক্রিকেটে প্রত্যেকটা দলই ভাল। চিন্তা করলে হবে না যে অনেক ভাল কিছু করব। আমরা জাস্ট বল দেখব, খেলব। অতো বেশি চিন্তার কিছু নেই আমরা যেটা পারি ওই জিনিসটা করব।

ব্যাটিং নিয়ে বাড়তি উদ্বেগের কারণ আছে?

নাজমুল হোসেন শান্ত: ব্যাটিং সব সময় অনেক আনন্দের। ওই চিন্তা করে যদি মাঠে ব্যাট করতে পারি তাহলে স্বাভাবিকভাবে ব্যাটিং ভাল হবে। যেখানেই ব্যাটিং করি যদি উপভোগ করি তাহলে ভাল।

বিশ্বকাপে ফিল্ডিং একদমই বাজে গেছে। এবার ভাল করতে কতটা আত্মবিশ্বাসী?

নাজমুল হোসেন শান্ত: ফিল্ডিংয়ের ব্যাপার নিবেদনের একটা বিষয়। আমরা যারা এখানে ফিল্ডার আছি, খুব ভাল একটা ফিল্ডিং দল। সবাই আমরা একসঙ্গে খেলেছি। এইচপি হতে পারে বা এ দলে হতে পারে। ফিল্ডিং জিনিসটা হলো অনেক উপভোগ করার ব্যাপার বা নিবেদনের ব্যাপার। আশা করি আমরা আগে যা করে এসেছি সেটাই এখানে করব। এবং ফিল্ডিংটা সবাই উপভোগ করে। আশা করছি ভাল হবে।

সূত্র : রাইজিংবিডি
এন এইচ, ১৮ নভেম্বর

Back to top button