ব্যবসা

বিনিয়োগকারীর অর্থের ৮০ শতাংশ মার্জিন ঋণ দেওয়া যাবে: বিএসইসি

ঢাকা, ১৫ নভেম্বর – পুঁজিবাজারে শেয়ার কেনার জন্য মার্জিন ঋণ অনির্দিষ্ট সময়ের জন্য বিদ্যমান ১:০.৮০ ঋণ সুবিধার বিষয়ে নতুন নির্দেশনা দিয়েছে বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)।

সোমবার (১৫ নভেম্বর) এই বিষয়ে একটি নির্দেশনা জারি করেছে বিএসইসি। পরবর্তী আদেশ জারি না করা পর্যন্ত এই ঋণ-সুবিধা বহাল থাকবে বলেও নির্দেশনায় বলা হয়। ফলে অনির্দিষ্ট সময় পর্যন্ত, ব্রোকারহাউজ ও মার্চেন্ট ব্যাংকগুলো তাদের গ্রাহকদের ১০০ টাকা নিজস্ব মূলধনের বিপরীতে ৮০ টাকা পর্যন্ত ঋণ দিতে পারবে। বিএসইসি সূত্রে এই তথ্য জানা গেছে।

পুঁজিবাজারের সাম্প্রতিক নিম্নমুখী প্রবণতার পরিপ্রেক্ষিতে এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে বলে জানা গেছে। মার্জিন ঋণের অন্যান্য শর্ত অপরিবর্তিত রাখা হয়েছে। যেসব কোম্পানির শেয়ারের মূল্য-আয় অনুপাত (পিই রেশিও ) ৪০ বা তার কম, সেসব কোম্পানির শেয়ারেই কেবল মার্জিন ঋণ দেয়া যাবে।

প্রসঙ্গত, এর আগে গত ১৩ আগস্ট বিএসইসির এক নির্দেশনায় বলা হয়েছিলো, ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) প্রধান মূল্যসূচক ডিএসইএক্স অবস্থান ৮ হাজার পয়েন্ট পর্যন্ত থাকলে ১:০.৮০ হারে মার্জিন ঋণ পাওয়া যাবে।

পুঁজিবাজারে গত বছরের মাঝামাঝি সময় থেকে বাজারে সূচক ও লেনদেন বাড়তে থাকে। গত বছরের ৩০ জুন ডিএসইএক্সের অবস্থান ছিলো ৩ হাজার ৯৮৯ পয়েন্ট। এর পর থেকে ধারাবাহিক উর্ধগতির মধ্য দিয়ে চলতি বছরের অক্টোবরে এটি ৭ হাজার পয়েন্ট অতিক্রম করে।

কিন্তু এর পর থেকেই সূচকের অবস্থান কিছুটা নড়বড়ে হয়ে পড়ে। সূচক কমে ৭ হাজার পয়েন্টের নিচে চলে আসে। মনে করা হচ্ছে, মার্জিন ঋণ সুবিধা সংক্রান্ত অনিশ্চয়তার কারণে সৃষ্ট আস্থাহীনতার কারণেই বাজার বারবার থমকে যাচ্ছে। এই অবস্থার পরিপ্রেক্ষিতে বিএসইসি ঋণ-সুবিধার সর্বোচ্চ সীমার সাথে সূচকের অবস্থানের শর্ত শিথিল করা হয়েছে।

সূত্র: বাংলাদেশ জার্নাল
এম ইউ/১৫ নভেম্বর ২০২১

Back to top button