কুড়িগ্রাম

সড়ক দুর্ঘটনায় একই পরিবারের তিনজনসহ নিহত ৫

কুড়িগ্রাম, ১২ নভেম্বর – কুড়িগ্রামে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় পাঁচজন নিহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। বৃহস্পতিবার (১১ নভেম্বর) রাতে নাগেশ্বরীতে চারজন ও শুক্রবার (১২ নভেম্বর) সকালে রাজারহাটে একজন মারা গেছেন।

প্রতিনিধির পাঠানো খবরে বলা হয়েছে, বৃহস্পতিবার রাত ৭টার দিকে ভুরুঙ্গামারী-কুড়িগ্রাম সড়কের নাগেশ্বরী উপজেলার রায়গঞ্জ ইউনিয়নের আলেপের তেপথি এলাকায় জুলেখা পাম্পের কাছে ঢাকাগামী নৈশকোচের চাপায় অটোরিকশার চালক ও একই পরিবারের তিন যাত্রীসহ চারজন মারা যান।

নিহতরা হলেন- নাগেশ্বরী উপজেলার রায়গঞ্জ ইউনিয়নের পশ্চিম সাপখাওয়া এলাকার মৃত সমুদ্দি শেখের ছেলে অটোচালক জলিল সরকার, একই এলাকার শহিদুল ইসলাম ও তার মেয়ে শিশু সুমাইয়া, মা সুফিয়া বেগম।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে ভূরুঙ্গামারী থেকে ছেড়ে আসা রিজভী পরিবহনের একটি নৈশকোচ রায়গঞ্জ আলেপের তেপতি এলাকায় পৌঁছালে একটি অটোরিকশাকে ধাক্কা দেয়। এতে ঘটনাস্থলে দুইজন মারা যান। আহতদের উদ্ধার করে প্রথমে নাগেশ্বরী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পরে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। সেখানে নেয়ার পথে আরও দুজনের মৃত্যু হয়। শাহানাজ বেগম নামের একজন সেখানে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

গণমাধ্যমকে এ তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন নাগেশ্বরী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নবীউল হাসান। তিনি বলেন, মরদেহ উদ্ধার করে হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। চালককে আটকের পর বাসটি জব্দ করা হয়েছে।

অন্যদিকে শুক্রবার সকালে জেলার রাজারহাট উপজেলায় আমিন বাজার এলাকায় ট্রাকচাপায় সিরাজ আলী (৬০) নামের এক ভ্যানচালক নিহত হয়েছেন। সিরাজ আলী রাজারহাট উপজেলার ছিনাই ইউনিয়নের মহীধর আমিন বাজার এলাকার বাসিন্দা।

এ তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করে রাজারহাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রাজু সরকার জানান, সেলিমনগর থেকে ভ্যান চালিয়ে ফেরার পথে ট্রাকচাপায় তার মৃত্যু হয়।

সূত্র : বাংলাদেশ জার্নাল
এন এইচ, ১২ নভেম্বর

Back to top button