ফ্যাশন

শাড়ি পরার যত নিয়ম

শাড়ি বাঙালি নারীদের আকর্ষনীয় একটি পোশাক। এদেশের নারীর সৌন্দর্য শাড়িতেই ফুটে উঠে। কিন্তু এই প্রজন্মের অনেকেই জানেন না কি ধরনের শাড়িতে তাকে মানাবে। আবার অনেকেই শাড়ি পরেন অনেক বছর ধরে কিন্তু জানেনই কোন শাড়িতে তাকে মানায়। সেইসব নারী ও তরুণীদের জন্য রইলো কিছু টিপস..

১। শরীরের গড়ন ভারী হলে জর্জেট, শিফন বা চিকন ফ্যাব্রিকের শাড়ি পরুন। তাতে বেশ স্লিম দেখাবেন। যদি সিল্কের শাড়ি পরতে ভালোবাসেন, তাহলে বেছে নিতে পারেন মাইসোর সিল্ক।

২। স্লিম ও ট্রিম ফিগার হলে সুতি, টিসুর মতো হালকা ফ্যাব্রিক বেছে নিন। তাতে শরীরের গড়ন আরও আকর্ষণীয় দেখাবে।

৩। গায়ের রং চাপা হলে যে ডার্ক কালারের শাড়ি পরতে পারবেন না, তেমন কোনও নিয়ম নেই। বরং গায়ের রং চাপা হলে ডার্ক কালারের শাড়িই বেশি ভালো মানায়। গায়ের রং চাপা হলেও, লোকের কথায় কান না দিয়ে পরে ফেলুন কালো বা পেস্টাল ভায়োলেট রঙের শাড়ি।

৪। সরু পাড় দেওয়া শাড়ি পরুন, যদি হাইট কম হয়। ছোটো ছোটো প্রিন্টের ও ডার্ক কালারের শাড়ি পরলে ভালো মানাবে।

৫। চওড়া পাড় দেওয়া ও বড় বড় প্রিন্টের শাড়ি ভালো মানাবে যদি উচ্চতা বেশি হয়।

৬। শাড়ি পরলে পেটিকোটও গোড়ালি পর্যন্ত লম্বা হতে হবে। যাতে হাঁটাচলা করলে পা না দেখা যায়।

৭। পেটে মেদ দেখা দিলে শাড়ির আচল ভাঁজ করে পরবেন না। আঁচলটা বরং ছেড়েই রাখুন। এমনভালে শাড়ি আঁচলটা রাখুন যাতে পেট বোঝা না যায়।

৮। শাড়ির পরার আগে তা পরিপাটি হওয়া খুব দরকার। তবেই না সাজটাও পরিপাটি হবে। তাই সিল্ক, টিশু, সুতি, এই জাতীয় শাড়ি আগে ভালো করে ইস্ত্রি করে তারপর পরুন।

এম ইউ

Back to top button