দক্ষিণ আমেরিকা

স্বামী প্রেসিডেন্ট, স্ত্রী ভাইস প্রেসিডেন্ট

মানাগুয়া, ১০ নভেম্বর – পরিবারতান্ত্রিক রাজনীতি বিশ্বের অনেক দেশেই রয়েছে। কিন্তু এমনটা হয়তো বিশ্বের আর কোথাও নেই। যেমনটা দেখা যাচ্ছে নিকারাগুয়ায়।

ল্যাটিন আমেরিকার দেশটিকে প্রায় দুই দশক ধরে শাসন করছে ডানিয়েল ওর্তেগা সরকার। যেখানে প্রেসিডেন্ট হিসাবে দায়িত্ব পালন করছেন স্বামী ওর্তেগা।

ভাইস প্রেসিডেন্ট হিসাবে তাকে সহযোগিতা করছেন স্ত্রী রোজারিও মুরিলো। ২০০৭ সাল থেকে ক্ষমতায় রয়েছেন ৭৫ বছর বয়সি প্রেসিডেন্ট ডানিয়েল ওর্তেগা। রোববারের নির্বাচনে চতুর্থ মেয়াদে নির্বাচিত হয়েছেন তিনি।

এর সুবাদে আগামী ২০২৭ সাল পর্যন্ত দায়িত্ব পালন করবেন। দেশ শাসন ও সরকার পরিচালনায় তার সবসময়ের সঙ্গী স্ত্রী ও খ্যাতনামা কবি রোজারিও মুরিলো।

২০০৫ সালে তাদের বিয়ে হয়। ২০১৭ সালে তৃতীয় মেয়াদে জয়ের পর স্ত্রীকে ভাইস প্রেসিডেন্ট নিয়োগ করেন ওর্তেগা। এরপর থেকে কালেভদ্রেই জনসম্মুখে আসেন তিনি। সরকারের সব কর্মকাণ্ড কার্যত সামলাচ্ছেন মুরিলো।

নিকারাগুয়ায় প্রেসিডেন্ট নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয় রোববার। সোমবার রাত পর্যন্ত প্রায় ৫০ শতাংশ ভোট গণনার পরে দেখা যায়-বিরোধীদের থেকে অনেকটা এগিয়ে ডানিয়েল ওর্তেগার দল সান্দিনিস্তা ন্যাশনাল লিবারেশন ফ্রন্ট (এফএসএলএন)।

নিকারাগুয়ার কেন্দ্রীয় নির্বাচন কমিশন (সিএসই) জানায়, নির্বাচনে সান্দিনিস্তারা ৭৬ শতাংশ ভোট পেয়েছে। ১৪ শতাংশ ভোট পেয়ে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে কনস্টিটিউশনাল লিবারেল পার্টি। অন্য বিরোধী দলগুলোর প্রাপ্ত ভোট ৫ শতাংশের তলায়।

তবে সমালোচকদের ভাষ্য, ভোটের আগে আগে শক্তিশালী সব প্রতিদ্বন্দ্বীকে জেলে ঢুকিয়ে ও নির্বাচনে অযোগ্য ঘোষণা করে ওর্তেগা নির্বাচনের বিশ্বাসযোগ্যতাকে আগেই প্রশ্নের মুখে ঠেলে দিয়েছিলেন।

যুক্তরাষ্ট্র নিকারাগুয়ার নির্বাচনকাণ্ডে দেশটির ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপেরও হুমকি দিয়েছে বলে এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স। ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন ও অর্গানাইজেশন অব আমেরিকান স্টেটসের প্রতিনিধিদের নিকারাগুয়ার এবারের নির্বাচন পর্যবেক্ষণে অনুমতি দেওয়া হয়নি; দেশটিতে ঢোকার অনুমতি পাননি বিদেশি সাংবাদিকরাও।

সূত্র : যুগান্তর
এন এইচ, ১০ নভেম্বর

Back to top button