জাতীয়

ফের ঊর্ধমুখী মৃত্যু ও সংক্রমণ

ঢাকা, ০৮ নভেম্বর – করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় সারাদেশে আরও ছয়জনের মৃত্যু হয়। এ নিয়ে ভাইরাসটিতে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়ালো ২৭ হাজার ৯০১ জনে। মৃত্যুহার ১ দশমিক ৭৮ শতাংশ।

২৪ ঘণ্টায় মৃত ছয়জনের মধ্যে তিনজন পুরুষ ও তিনজন নারী। এদের মধ্যে সরকারি হাসপাতালে চারজন ও বেসরকারি হাসপাতালে দুইজন মারা যান।

এই সময়ে করোনায় আক্রান্ত হিসেবে নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছেন আরও ২১৫ জন। এ নিয়ে দেশে মোট করোনা রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৫ লাখ ৭১ হাজার ২২৮ জনে।

সোমবার (৮ নভেম্বর) স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা স্বাক্ষরিত করোনা পরিস্থিতি সংক্রান্ত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় সরকারি-বেসরকারি ৮৩৪টি ল্যাবরেটরিতে ১৬ হাজার ৮১২টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এ নিয়ে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী শনাক্ত করতে এক কোটি চার লাখ ৯০ হাজার ৪১২টি নমুনা পরীক্ষা করা হলো।

নমুনা পরীক্ষায় শনাক্তের হার ১ দশমিক ২৮ শতাংশ। দেশে গত বছরের ৮ মার্চ প্রথম করোনাভাইরাস আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়। আজ পর্যন্ত সর্বমোট নমুনা পরীক্ষার ভিত্তিতে শনাক্তকৃত রোগীর হার ১৪ দশমিক ৯৮ শতাংশ।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়ে উঠেছেন ২০৯ জন। এ নিয়ে দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার পর চিকিৎসা শেষে সুস্থ হয়ে ওঠা রোগীর সংখ্যা ১৫ লাখ ৩৫ হাজার ৩৪ জন। সুস্থতার হার ৯৭ দশমিক ৭০ শতাংশ।

২৪ ঘণ্টায় মৃত ছয়জনের মধ্যে বিশোর্ধ্ব একজন, পঞ্চাশোর্ধ দুইজন, সত্তরোর্ধ্ব দুইজন ও ৯০ বছরের বেশি বয়সী একজন রয়েছেন। ছয়জনের মধ্যে ঢাকা বিভাগে চারজন ও খুলনা বিভাগের দুইজন।

দেশে গত বছরের ৮ মার্চ প্রথম করোনাভাইরাস শনাক্ত হয় এবং এর ১০ দিন পর ১৮ মার্চ এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে প্রথম রোগীর মৃত্যু হয়।

সূত্র: জাগো নিউজ
এম ইউ/০৮ নভেম্বর ২০২১

Back to top button