ক্রিকেট

অযোগ্য’ পাপন, ‘নির্লজ্জ’ ক্রিকেট বোর্ড: সাবের

ঢাকা, ০৬ নভেম্বর – বিশ্বকাপে বাংলাদেশের ভরাডুবির পেছনে ক্রিকেট বোর্ডের বিরাট দায় দেখছেন ক্রিকেট সংশ্লিষ্টরা। ক্রিকেট বোর্ডের সাবেক সভাপতি সাবের হোসেন চৌধুরী দাবি করছেন, বোর্ড প্রধান নাজমুল হাসান পাপন অযোগ্য এবং তার অধীনে একটি নির্লজ্জ ক্রিকেট বোর্ড কাজ করছে।

সরকারের মনোনয়নে ২০১২ সালের অক্টোবরে বিসিবি সভাপতির দায়িত্ব গ্রহণ করেন নাজমুল হাসান। এক বছর পর আরেক অক্টোবরে নির্বাচনে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হন তিনি। পরের আট বছরে দুটি নির্বাচন অনুষ্ঠিত হলেও নাজমুল হাসানই বিসিবি সভাপতির চেয়ার বসেন। তার অধীনে ২০১৪, ২০১৬ ও ২০২১ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ এবং ২০১৫ ও ২০১৯ ওয়ানডে বিশ্বকাপ খেলে বাংলাদেশ।

২০১৫ ওয়ানডে বিশ্বকাপে বাংলাদেশ কোয়ার্টার ফাইনাল খেললেও বাকি সবকটি টুর্নামেন্টে পারফরম্যান্স ছিল হতশ্রী। তবে ২০১৭ চ্যাম্পিয়নস ট্রফিতে বাংলাদেশ সেমিফাইনাল খেলেছিল। বৈশ্বিক মঞ্চে বাংলাদেশের পারফরম্যান্সের সূচক নিম্নমুখী হওয়ার পেছনে ক্রিকেট বোর্ডের দায় দেখছেন সাবের হোসেন।

নানা মহল থেকে সমালোচনা হচ্ছে। সেই তালিকায় এবার যোগ দিয়েছেন ১৯৯৬ থেকে ২০০১ পর্যন্ত বিসিবি সভাপতির দায়িত্ব পালন করা সাবের হোসেন। টুইটারে তিনি পোস্ট করেছেন, ‘জনাব পাপনের (নাজমুল হাসান) অধীনে বাংলাদেশ এই নিয়ে চারটি বিশ্বকাপ খেলে ফেললো। পারফরম্যান্স খারাপ থেকে খারাপতম হয়েছে। বিসিবিতে সবচেয়ে বেশি সময় কাটানো সভাপতি সবচেয়ে অযোগ্যও। অন্যের ওপর দোষ চাপাতে চাপাতে তিনি আমাদের ক্রিকেটকে মাটিতে মিশিয়ে দিয়েছেন। এটা দুঃখজনক যে আমাদের একটা নির্লজ্জ ক্রিকেট বোর্ড আছে।’

নানা সময়েই বোর্ডের সমালোচনা করেন সাবের হোসেন। কোচিং স্টাফদের নিয়োগ, পারফরম্যান্স, সামর্থ্য নিয়ে প্রায়ই কথা বলেন। মাশরাফির অবসর প্রসঙ্গ ও বোর্ডের পেশাদারিত্ব নিয়েও সমালোচনা করেছেন। এবার টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের বাজে পারফরম্যান্সের পর বোর্ডের ওপর নিজের সব রাগ উগড়ে দিলেন তিনি।

সূত্র : রাইজিংবিডি
এন এইচ, ০৬ নভেম্বর

Back to top button